প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যশোরে একুশে ফেব্রুয়ারিতে থাকবে পুলিশের সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা

জাহিদুল কবীর মিল্টন: একুশে ফেব্রুয়ারি মহান শহীদ ও আন্তর্জাতিক ভাষা দিবস উপলক্ষ্যে যশোর পুলিশের পক্ষ থেকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আনসার উদ্দিন একথা জানান।

তিনি বলেন,একুশের রাতে যশোরের সর্বস্তরের মানুষ শহীদদের প্রতি সম্মান জানাবে। শহীদদের সম্মান জানাতে একুশের মঞ্চ ইতি মধ্যে প্রস্তুত করা হয়েছে। শান্তিপূর্ণ ও সুশৃঙ্খল ভাবে শ্রদ্ধা জানানো নিশ্চিত করতে যশোর পুলিশের পক্ষ থেকে তিন স্তরের নিরাপত্তার ব্যবস্থা নিশ্চিত করা হয়েছ্। একুশে ফেব্রুয়ারিকে কেন্দ্র করে নিরাপত্তার কোনো ঘাটতি নেই উল্লেখ করে আনসার উদ্দিন বলেন, নিরাপত্তাজনিত কোনো শঙ্কা নেই। তবে সম্ভাব্য সব ঝুঁকি বিবেচনায় রেখে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

যশোরের কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে সার্বিক নিরাপত্তার কথা তুলে ধরে আনসার উদ্দিন বলেন, ২০ ফেব্রুয়ারি সকাল ৮ টা থেকে ২১ ফেব্রুয়ারি কর্মসূচি শেষ না হওয়া পর্যন্ত পর্যায় ক্রমে ফোর্স মোতায়েত করা হয়েছে। কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে প্রবেশের জন্য ভিভিআইপি গেটসহ জনসাধারণের প্রবেশ ও বের হওয়ার গেটে পোষাকধারী পুলিশের পাশাপাশি সাদা পোষাকে পুলিশ কাজ করবে। তারা হ্যান্ডমেটাল ডিটেক্টরসহ নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত থাকবে। এছাড়া শহীদ মিনারের আশে পাশের উচু বিল্ডিং সমূহের ছাদে বাইনোকুলারসহ পুলিশ দায়িত্ব পালন করবে।

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে বিভিন্ন সাংস্কৃতিক সংগঠন কর্তৃক আয়োজিত, জেলা প্রশাসকের কার্যালয় (কালেক্টরেট চত্ত¡র), টাউন হল ময়দান ও কালেক্টরেট পার্ক, সরকারী এম এম কলেজসহ সকল স্কুল, কলেজ ও অন্যান্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সরকারী-আধাসরকারী ও স্বায়ত্বশাসিত এবং বেসরকারী প্রতিষ্ঠান ও অন্যান্য সকল কর্মসূচীতে প্রয়োজনীয় পুলিশ ফোর্স মোতায়েন করা হয়েছে।

কর্মসূচি গুলি যথাযোগ্য মর্যাদা ও ভাবগাম্ভীর্যের সাথে পালনের লক্ষ্যে শহরের দড়াটানা, বকুলতলা, রেজিষ্ট্রি অফিস মোড়, চুয়াডাঙ্গা বাসস্ট্যান্ড, পুলিশ অফিস মোড়সহ শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়কে ট্রাফিক পুলিশের পাশাপাশি পোষাকধারী ও সাদা পোষাকে ৫ শতাধিক অফিসার ও ফোর্স কাজ করবে।

একই সাথে সাদা পোশাকে গোয়েন্দা সদস্যরা দায়িত্ব পালন করবে। এছাড়াও ২১ সকাল ৮ টা থেকে দিনব্যাপী বেনাপোল নোম্যান্সল্যান্ডে দুই বাংলার উদ্যোগে বাংলাদেশ ও ভারত সীমান্তে শহীদ দিবস ও আর্ন্তজাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন উপলক্ষে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধাঞ্জলী নিবেদন, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে। গৃহীত কর্মসূচী সুষ্ঠু ও সুন্দর ভাবে পালনের লক্ষ্যে যশোর জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত