প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঐতিহাসিক মসজিদকে যাদুঘর করছে ইসরায়েল

রাশিদ রিয়াজ : এবারই নতুন নয়, ১৯৪৮ সালের পর ইসরায়েল শত শত মসজিদ, কবরস্থান ও ধর্মীয় উপস্থাপনা ধংস করেছে। জাফা, লড, আল-রামলা, আশকেলন ও অন্যান্য শহরে এর কোনটি রুপান্তর করা হয়েছে বার কিংবা নাইট ক্লাবে।

তাইবেরিয়াসের শাসক আল-জাহের ওমর ১৭৪৩ সালে আল-বাহর মসজিদটি নির্মাণ করেছিলেন। তাইবেরিয়াসে একটি হ্রদের পারে এ মসজিদটি সি অব গ্যালিলি হিসেবে পরিচিত। ফিলিস্তিন ভূমি দখলের পর এ মসজিদটি বন্ধ করে দেয় ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ। কোনো মুসলমানকে আর ওই মসজিদে ঢুকতে দেয়া হয়নি। এরপর তা বারে রুপান্তরিত করা হয়। ২০০০ সালে তাইবেরিয়াস পৌরসভা, ইসরায়েলের ফিলিস্তিন নাগরিক ও আরব সাংসদদের মধ্যে একটি চুক্তির পর ফের মসজিদটি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়। এরপর মসজিদটি পরিস্কার করতেও দেয়া হয়নি। সর্বশেষ এটিকে যাদুঘরে রুপান্তরের উদ্যোগ নিয়েছে ইসরায়েল। মিডিল ইস্ট মনিটর

সর্বাধিক পঠিত