প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভাবিকে মায়ের মতো ভাবতে সাবধান করে ইসলাম

আল-আমিন : আমাদের সমাজে অনেকের ধারণা- ভাবি হলো মায়ের মতো। ভাবি তাই দেবরের সামনে পর্দার কোন প্রয়োজনীয়তা মনেই করে না। ঘরের মধ্যে ভাবি দেবরের সাথে কতো কিছু যে শেয়ার করে! একটা নোংরা প্রবাদ আছে, ‘স্বামী আমার যেমন তেমন, দেবর আমার মনের মতোন।’- এসব নোংরা কথা প্রায়ই শুনতে পাওয়া যায়। আর ভাবিকে এখানে-সেখানে নেওয়ার কাজটা দেবরই ভালো করে করতে পারে। এমন কি শ্বশুর-শাশুড়িও মনে করে যে বড় বউ একটু বাইরে যাবে তো এক্ষেত্রে আমার ছোট ছেলেই নিয়ে যাক। কিন্তু আসল ঘটনা কি?

আমরা মাঝে মাঝে শুনতে পাই কিংবা পত্রিকায় দেখি যে, দেবর তার ভাবিকে নিয়ে পালিয়ে গেছে। এটা কেমন কথা হল? ভাবি কি মায়ের মতো! ছেলে তো মাকে নিয়ে ভেগে যাওয়ার কথা না। এটা কেমন মা, যে দেবর নামক ছেলেটি ভাবি নামক মাকে নিয়ে ভেগে গেল? সত্যিই উদ্ভট! ভাবী কি করে মায়ের মত হয়? ভাবী তো মাহরাম নয়। ভাই মারা গেলে ভাবীকে বিয়া করা যায়।

দেবরের সামনে ভাবিকে পর্দা করতে হবে। আর ঘরের ইঁদুর বেড়া কাটলে সে ঘর টিকে থাকে না। তেমনি ভাবির জন্য দেবর হল সবচেয়ে বিপজ্জনক। আল্লাহ্ যেখানে এটা হারাম করেছেন সেখানে লোকেরা কিভাবে এটাকে হালাল করতে পারে? সমাজের এসব অশ্লীল প্রচলন থেকে বের হয়ে আসতে হবে আমাদের এবং কোরআন ও সহীহ হাদীসের জ্ঞান অর্জন করতে হবে। রাসুল (সা.) বলেন, ‘তোমরা নারীদের নিকট প্রবেশ করা থেকে সাবধান থেকো।’ একথা শুনে আনসার গোত্রের একব্যক্তি জিজ্ঞাসা করল- ‘কিন্তু দেবর সম্পর্কে আপনার মত কি? রাসুল (সা.) বললেন- ‘দেবর তো মৃত্যু সমতুল্য।’ (বুখারীঃ ৫২৩২, মুসলিমঃ ২১৭২)

চিন্তা করুন, ইসলাম যেখানে দেবরকে মৃত্যু সমতুল্য বলে ঘোষণা দিলো সেখানে ভাবি মায়ের মত কি করে হতে পারে? আল্লাহ্ আমাদের এই ধরণের সীমালঙ্ঘন থেকে বেঁচে থাকার তাওফিক দিন। আমিন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত