প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পাহাড়ে আধিপত্য বিস্তারের জেরে জেএসএস কর্মীকে গুলি করে হত্যা

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ির পানছড়িতে আধিপত্য বিস্তারের জের ধরে পাহাড়ে এবার রনি ত্রিপুরা (৩২) নামে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস-এমএন লারমা) এক কর্মীকে গুলি করে হত্যা করেছে সন্ত্রাসীরা। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে পানছড়ি উপজেলা সদরের শুকতারা বোর্ডিংয়ের পাশে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত রনি ত্রিপুরা পানছড়ির মরাটিলা এলাকার মৃত মনিন্দ্র লাল ত্রিপুরার ছেলে। তিনি পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস-এমএন লারমা) কর্মী।

প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, সন্ধ্যা ৬ টার দিকে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্য ক্রয় করতে পানছড়ি বাজারে যাওয়ার সময় শুকতারা বোর্ডিংয়ের সামনে গেলে কতিপয় সন্ত্রাসী রনি ত্রিপুরাকে গুলি করে পালিয়ে যায়। এ সময় স্থানীয়দের সহযোগিতায় পুলিশ গুলিবিদ্ধ রনি ত্রিপুরাকে উদ্ধার করে পানছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

পানছড়ি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত চিকিৎসক মো. আরিফুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, রনি ত্রিপুরার কোমরের বাম পাশে গুলি লেগেছে।

পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস-এমএন লারমা) তথ্য ও প্রচার সম্পাদক সুধাকর ত্রিপুরা এ হ্যতাকাণ্ডের জন্য ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টকে (ইউপিডিএফ) দায়ী করে করেছেন। তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ইউপিডিএফ‘র সংগঠক মাইকেল চাকমা।

পানছড়ি থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. দুলাল হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

উল্লেখ্য এর আগে গেল ১৪ জানুয়ারি সোমবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে জেএসএসের (এমএন লারমা) রামগড় উপজেলা কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মোহন কুমার ত্রিপুরাকে গুলি করে হত্যা করে সন্ত্রাসীরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত