প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ডেপুটি স্পিকার বলেছেন, গাইবান্ধাবাসীর প্রতিনিধি হিসেবে বেঁচে থাকতে চাই

রফিকুল ইসলাম : রোববার দুপুরে সাঘাটা উপজেলার ভরতখালী ঐতিহ্যবাহী কালীমন্দির কমিটির উদ্যোগে মন্দিরের অতিথি ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়েঠে।

অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথি একাদশ জাতীয় সংসদের ডেপুটি স্পিকার অ্যাড. ফজলে রাব্বী মিয়া এমপি তার বক্তব্যে বলেন, জনগণকেই আমার সংবর্ধনা দেওয়া উচিত। কারণ সাঘাট-ফুলছড়ির মানুষ আমাকে ৭ বার ভোটদিয়ে এমপি নির্বাচিত করেছে। তাদের এই ঋণ আমি কি দিয়ে পরিশোধ করব ! অতীতের ন্যায় বাকি জীবনেও সাঘাটা-ফুলছড়িসহ গাইবান্ধাবাসির জীবনের প্রতিনিধি হিসেবে বেঁচে থাকতে চাই । আগে গাইবান্ধা অবহেলিত ছিল । এখন গাইবান্ধা আর অবহেলিত এলাকা নয়। সাঘাটা-ফুরছড়ির নদী ভাঙন রোধসহ গাইবান্ধার উন্নয়নে চেষ্টা চালিয়ে যাব।

কালিমন্দির কমিটির সভাপতি রনজিৎ কুমার চন্দের সভাপতিত্বে গৌতম কুমার চন্দের সঞ্চলনায় বক্তব্য রাখেন- উপজেলা নির্বাহী অফিসার উজ্জল কুমার ঘোষ, এসকেএস ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক রাসেল আহম্মেদ লিটন, জেলা হিন্দু বৌদ্ধ,খৃীষ্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি সূর্য্য বকসী, উপজেলা আ.লীগ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি নাজমুল হুদা দুদু, আবু বক্কর প্রধান, জেলা কৃষক লীগ সভাপতি হাসান মাহমুদ সিদ্দিক, সাধারণ সম্পাদক ও দৈনিক জনসংকেত পত্রিকার সম্পাদক দীপক কুমার পাল, মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল মান্নান মন্ডল প্রমুখ। এর আগে অ্যাড. ফজলে রাব্বী মিয়া কালিমন্দিরের ৩ তলা বিশিষ্ট ভবনের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত