প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মিয়ানমারের কারেন বিদ্রোহীদের সাথে সেনাবাহিনীর সংঘর্ষ

সাইদুর রহমান : মিয়ানমারের কারেন অঞ্চলের স্বাধীনতাকামী বিদ্রোহীদের সঙ্গে দেশটির সেনাবাহিনীর সংঘর্ষ ছড়িয়ে পড়েছে। গত বৃহস্পতিবার থেকে শুরু হওয়া বিদ্রোহী-সেনা সংঘর্ষে দুই সেনাসদস্য আহত হয়েছে। কাচিন প্রদেশের পর এবার কারেন অঞ্চলেও সংঘর্ষ শুরু হলো। কারেন ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মির সঙ্গে সেনাবাহিনীর ওই লড়াই তীব্র হতে পারে বলে শঙ্কা প্রকাশ করেছেন স্থানীয়রা। স্বায়ত্তশাসনের দাবিতে কয়েক দশক ধরে দেশটির কারেন অঞ্চলে কারেন ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মির (কেএনএলএ) সদস্যরা সশস্ত্র লড়াই করছে।

মিয়ানমারের ইংরেজি দৈনিক দ্য ইরাবতি বলছে, ম্যা থা ওর এলাকার হ্যাতগি বাধ প্রকল্পের কাছে কেএনএলএ নিয়ন্ত্রিত ভূখণ্ডে সেনাবাহিনী ও বিদ্রোহীদের সংঘর্ষ শুরু হয়েছে। কেএনএলএ বলছে, স্থলমাইন বিস্ফোরণে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর দুই সদস্য আহত হয়েছে।

কেএনএলএ প্রধান প্যাডন মান মান বলেছেন, বৃহস্পতিবার দুপুরের দিকে কেএনএলএ ব্রিগেড-৭ নিয়ন্ত্রিত এলাকায় মিয়ানমার সেনাবাহিনীর সদস্যরা প্রবেশের পর সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়েছে।

কারেন বিদ্রোহীদের এই নেতা আরো বলেন, মিয়ানমার সেনাবাহিনী ব্রিগেড ২,৫,৬ ও ৭ থেকে প্রচুর সেনা মোতায়েন করেছে ওই বাধ প্রকল্প এলাকায়। এদিকে পাপুন জেলাতেও কারেন ন্যাশনাল লিবারেশন আর্মির ব্রিগেড-৫ এর সঙ্গেও সম্প্রতি সেনাবাহিনীর সংঘর্ষ শুরু হয়।

তিনি বলেন, তারা প্রচুর সংখ্যক সেনা মোতায়েন করায় আমরা পরিস্থিতির ওপর আস্থা রাখতে পারছি না। শিগগিরই এ সংঘর্ষ আরো ছড়িয়ে পড়তে পারে বলে আমরা শঙ্কায় আছি।

উল্লেখ্য, দেশটির উত্তরাঞ্চলের কাচিন প্রদেশেও সেনাবাহিনীর সঙ্গে কাচিন বিদ্রোহীদের সংঘর্ষ নতুন করে ছড়িয়ে পড়েছে। সহিংসতায় কয়েক হাজার খ্রিস্টান জনগোষ্ঠী ওই অঞ্চল ছেড়ে পালিয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত