প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাঙ্গালির বন্ধু, ভারত জয়ী বাঙালির আগমন : রবিউল আলম

একজন বাঙ্গালি, একশত কোটি মানুষকে জয় করা বাঙ্গালির আগমন হয়েছিল বাংলার মাটিতে, বাংলাদেশে। সাড়ে সাত কোটি মানুষকে জয় করে বাংলার স্বাধীনতার প্রতীক জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুস্পমাল্য অর্পণ করে নিরবে দাঁড়িয়ে আছে, ভাবতে অবাক লাগছে। প্রকৃত শিক্ষায় শিক্ষিত একজন খাটি বাঙ্গালি ভারতের সাবেক রাষ্ট্রপতি প্রণব মূখার্জীর কথাই বলছি। বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রাম থেকে আজও পাশে আছে, বাংলাদেশের বিপদে যাকে সবসময় পাশে পেয়েছে। তবুও কিছুটা লজ্জা পেতে হয়, আমাদের দেশের তিনবার দাবীদার প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার কাছে প্রণব মূখার্জী উপেক্ষিত হওয়ার জন্য। এ লজ্জা বাঙ্গালিকে বইতে হবে সুদীর্ঘকাল।

প্রণব মূখার্জীর অনেক বড় মন, হয়তো আমাদেরকে ক্ষমা করেছেন। না হলে কি আর বাংলাদেশ সফরে আবারও আসতেন। এতবড় দেশ ভারত, নির্বাচনে কংগ্রেস পরাজিত হয়েও রাষ্ট্রপতির আসনের বিতর্ক হয় নাই। সম্মানজনক প্রস্থান হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি প্রণব মূখার্জী সম্পর্কে যে মধুর বাণী বিদায় অনুষ্ঠানে উচ্চারন করেছেন, তা ইতিহাস হয়ে থাকবে। আমি ব্যক্তিগতভাবে বিজিপি বিরোধী একজন মানুষ, স্বাধীনতা সংগ্রামে ইন্দিরা গান্ধীর অবদানের জন্য, প্রণব মূখার্জী সে থেকে আলাদা নয়। তবে অটল বিহারী বাজপেয়ী ও নরেন্দ্র মোদির জন্য আমার সেই গোরামির কিছুটা হলেও অবসান হয়েছে। প্রণব মূখার্জীর সফর থেকে আমাদের অনেক কিছু শেখার আছে। রাজনীতি জাতির জন্য হলে, ব্যক্তিগত প্রতিহিংসার কোন অবস্থান নেই।

জাতির জন্য কিছু করতে চাইলে, তবে আপনাকে একদিন না একদিন জাতি প্রতিদান দিবে, সম্মানের আসনে বসাবে। নিজে সম্মানিত হবেন, জাতিকে সম্মানিত করবেন। প্রণব মূখার্জীর সফর ভারতবাসীকে কতটা সম্মানিত করেছে, কতটা বন্ধুত্ব ও হৃদয়ের কাছে স্থান করে দিয়েছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। প্রতিহিংসা যুদ্ধ এনে দেয়। ভালোবাসা শান্তি অর্জনে সহায়তা করে। শান্তি ছাড়া দেশ ও জাতির উন্নয়ন হয় না। প্রণব মূখার্জীর কাছ থেকে বেগম খালেদা জিয়া যদি কিছু অর্জন করতে পারতেন, তবে বাংলাদেশ ও দেশের জনগণ উপকৃত হতো।

বাঙ্গালির প্রেম, ভাষার বন্ধন, জাতিগত ঐক্য, সংস্কৃতি, কবিতা, শিল্প, সাহিত্য, পরিবেশ, মানুষ ইচ্ছে করলে আলাদা হতে পারে না। খালেদা জিয়া কেন আলাদা জগত বেছে নিলেন। জ¦ালাও পোড়াও দিয়ে আর কিছু হলেও রাজনীতি হবে না। জাতি বারবার বুঝিয়ে দিলেও সে শিক্ষা নেওয়ার ক্ষমতা হয়তো খালেদা জিয়ার নাই। থাকলে প্রণব মূখার্জীকে উপেক্ষা করার ভুল থেকে সংশোধন করে নিতে পারতেন। এই লেখা ছাপা হওয়ার সময় পর্যন্ত সংশোধন করে নিবেন কিনা জানিনা। বাঙ্গালির বন্ধু, ভারত জয়ীর আগমন ও বিদায় শান্তিপূর্ণ হউক। স্মরণীয় হউক প্রণব মূখার্জী।

লেখক : ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব, বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতি

সম্পাদনা : মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত