শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৫ অক্টোবর, ২০২২, ০৫:০৫ বিকাল
আপডেট : ০৫ অক্টোবর, ২০২২, ০৫:০৭ বিকাল

প্রতিবেদক : শাখাওয়াত মুকুল

জনগণকে দূর্যোগের মধ্যে ফেলেছে সরকার: মির্জা ফখরুল

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

শাখাওয়াত মুকুল: বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেছেন, বিদ্যুৎ উৎপাদনের নামে সরকার বহু প্রজেক্ট করে টাকা বাগিয়ে জনগণকে বড় রকমের দূর্যোগের মধ্যে ফেলেছে সরকার। তারা শুধু চিৎকার করে বলেছে বিদ্যুৎ উৎপাদনে স্বয়ং সম্পুর্ন হয়েছি, প্রয়োজনের তুলনায় এখন বিদ্যুৎ বেশি উৎপাদন হচ্ছে ।

বুধবার বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য অসুস্থ ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকুর বাসায় গিয়ে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি।

এসময় তিনি বলেন, গতকাল (মঙ্গলবার) হঠাৎ করে বিদ্যুৎ চলে গেছে। প্রায় ৮ঘন্টা ছিল ব্ল্যাক আউট। ইন্টারনেট, কলকারখানা, সেচ ব্যবস্থা, হসপিটালে রোগীর সেবা বিঘ্ন, শিক্ষার্থীদের পড়ালেখা বন্ধ হয়েছে। একটা অসহনীয় অবস্থা উপলব্দি করেছে দেশের মানুষ। এর জন্য মূলত দায়ী অপরিকল্পিতভাবে বিভিন্ন প্রজেক্ট গ্রহণ করা। শুধু অপিরকল্পিত নয়। সরকারের দুর্নীতি ছিল লক্ষ্যনীয় ।

ফখরুল বলেন, আমরা বারবার বলেছি এই সরকার এখন জনগণের জন্য বোঝা হয়ে গেছে। তাই তাদেরকে ক্ষমতা থেকে সরে যেতে হবে । সংসদ বিলুপ্ত করতে হবে। তিনি বলেন, এখন বর্গিদের মত হয়ে গেছে দেশ। সরকার শুধু পাচার আর লুটপাট নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েছে। তাই এখন উত্তরণের একটাই উপায় এই সরকারকে ক্ষমতা ছেড়ে চলে যেতে হবে।

তিনি আরও বলেন, সরকারের একটা ব্যর্থতা যে, টেকনিক্যাল সাইডেই চুরি হয়েছে বলেই গতকাল বিদ্যুতের এমন বিপর্যয়  ঘটেছে। শুধু একটা ক্ষেত্রে না। সর্বক্ষেত্রেই এমন চুরি আর লুটপাট হয়েছে।

তিনি বলেন, দেশে কোথাও জবাবদিহি নাই। এই সরকারের জনগণের প্রতি কোন দায় নেই বলেই প্রতিটা ক্ষেত্রে এমন ঘটনা ঘটেছে।

সাবেক বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু বলেন, এই সরকার আসার পর থেকে কয়েক বার ব্ল্যাক আউট হয়েছে। শত শত কোটি টাকা খরচ করে তারা যে প্রজেক্টগুলো করেছে তা কোন প্রকার গবেষণা ছাড়াই করেছে। যার ফল মঙ্গলবারই ভোগ করেছে দেশের জনগণ। ৮ ঘন্টা বিদ্যুৎ বিহীন থেকে ভোগান্তিতে পড়েছে জনগণ।

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়