শিরোনাম

প্রকাশিত : ০৫ জুলাই, ২০২২, ১০:১২ রাত
আপডেট : ০৫ জুলাই, ২০২২, ১০:১২ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

সমৃদ্ধ বাংলাদেশের জন্য আধুনিক ও টেকসই দৃষ্টিভঙ্গির প্রয়োজন: স্পিকার 

সাসটেইনেবিলিটি ভিশন ২০৩০ভিশন ২০৩০

মনিরুল ইসলাম: জাতীয় সংসদের স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সুদক্ষ নেতৃত্বে আমাদের জাতীয় অর্থনীতি আজ মজবুত ভিতের উপর দাড়িয়ে আছে। একটি উন্নত ও সমৃদ্ধ বাংলাদেশের জন্য আধুনিক ও টেকসই দৃষ্টিভঙ্গির প্রয়োজন। সময়োপযোগী পরিবর্তনকে ধারণ   করে বিজিএমইএ উন্নত সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মানে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন স্পিকার।  

বিজিএমইএ কর্তৃক রাজধানী ঢাকার গুলশানস্থ হোটেল ওয়েস্টিনে আয়োজিত “সাসটেইনেবিলিটি ভিশন ২০৩০” শীর্ষক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে স্পিকার এসব কথা বলেন। এসময় তিনি বিজিএমইএ এর নতুন লোগো উন্মোচন করেন।  

তৈরি পোশাক উৎপাদক ও রপ্তানিকারকদের সংগঠন বিজিএমইএ এর সভাপতি জিয়ান্ট গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফারুক হাসান এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে সহ-সভাপতি মিরান আলী বিজিএমইএ এর নতুন লোগো ও কর্মপরিধি নিয়ে অডিও ভিজ্যুয়াল প্রেজেন্টেশন প্রদান করেন। সাবেক সভাপতি সালাম মূর্শেদি অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদান করেন। 

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কোভিড সময়ে আরএমজি সেক্টরে যেভাবে প্রনোদনা দিয়েছেন, বিরুপ পরিস্থিতিতেও দেশকে স্বাভাবিক রেখেছেন, তা আরএমজি সেক্টরের বিকাশে সহায়তা করেছে।

সদ্য সমাপ্ত ২০২১-২২ অর্থবছরে ৫২ বিলিয়ন ডলারের বেশি মূল্যের পণ্য রপ্তানির মাধ্যমে রপ্তানি আয়ে রেকর্ড সৃষ্টি হয়েছে, পোশাক রপ্তানি থেকে ৪২ দশমিক ৬১ বিলিয়ন ডলার আয় এই ধারাবাহিক উন্নতির সুফল বলে তিনি উল্লেখ করেন। 

স্পিকার বলেন, বিজিএমইএ এর ৪০ বছরের সফল পথচলার কারনেই আরএমজি সেক্টরে বাংলাদেশ সারা বিশ্বে ২য় অবস্থানে আছে। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী, জাতির পিতার জন্মশতবর্ষ সময়কালে এ ধরণের অর্জন দেশকে গৌরবান্বিত করে। আন্তর্জাতিক বাজারে নিজেদের অবস্থান সুদৃঢ় করার জন্য তিনি সকল ধরণের প্রস্তুতি গ্রহণের আহ্বান জানান।

  • সর্বশেষ