শিরোনাম
◈ মাস্টার প্যানের অংশ হিসেবে মধ্যরাতে বিএনপি কার্যালয়ে ডিবি প্রধানের অভিযান: রিজভী ◈ আমার দুই সন্তান বাপ ডাকবে কাকে ◈ রাতে নয়াপল্টনে বিএনপির কার্যালয়ে ডিবির অভিযান, গ্রেপ্তার ৭ ◈ আজ কোটা আন্দোলনকারীদের গায়েবানা জানাযা ও কফিন মিছিল ◈ বিশ্ব গণমাধ্যমে কোটাবিরোধী আন্দোলনে প্রাণহানির খবর ◈ সারা দেশে সব বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা, শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার নির্দেশ ◈ বৃহস্পতিবারের এইচএসসি পরীক্ষা স্থগিত ◈ দেশের সব স্কুল-কলেজ বন্ধ ঘোষণা করেছে শিক্ষা মন্ত্রণালয় ◈ বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য ডাবলু মারা গেছেন ◈ ঢাকা, চট্টগ্রাম, বগুড়া, রংপুরে ও রাজশাহীতে বিজিবি মোতায়েন

প্রকাশিত : ২৩ জুন, ২০২৪, ০৯:১৯ রাত
আপডেট : ২৩ জুন, ২০২৪, ০৯:১৯ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

প্রথমবারের মতো উদ্যাপিত হচ্ছে পুলিশের ঢাকা রেঞ্জের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী

সুজন কৈরী: [২] ‘সৌরভে-গৌরবে ঢাকা রেঞ্জ, ফিরে দেখা ১১০ বছর’ এই স্লোগানকে ধারণ করে ঢাকা রেঞ্জ পুলিশ প্রতিষ্ঠার ১১০ বছর পূর্তি উদ্্যাপন করতে যাচ্ছে। 

[৩] এ উপলক্ষ্যে সোমবার সকালে সেগুনবাগিচার ঢাকা রেঞ্জ অফিস থেকে র‌্যালি বের করা হবে। এছাড়া সন্ধ্যায় রাজারবাগ পুলিশ লাইনসের অডিটোরিয়ামে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছে।

[৪] আইজিপি চৌধুরী আবদুল্লাহ আল-মামুনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। 

[৫] পুলিশ সদরদপ্তর জানিয়েছে, বৃটিশ ইন্ডিয়ার তৎকালীন বেঙ্গল প্রেসিডেন্সির বৃহত্তর ঢাকা, ময়মনসিংহ, ফরিদপুর ও বাকেরগঞ্জ (বরিশাল) জেলা নিয়ে ঢাকা রেঞ্জ প্রতিষ্ঠিার প্রজ্ঞাপন ১ এপ্রিল ১৯১২ সালে জারী করা হয়। 

[৬] ১৯১৪ সালের ১৮ মে’র গেজেট অর্ডারের ভিত্তিতে তৎকালীন বেঙ্গল প্রেসিডেন্সির বৃহত্তম ময়মনসিংহ জেলার পুলিশ সুপার জন মার্টিন কোট্্স, ই.এস.কিউ, আইপি- কে ঢাকা রেঞ্জের ডিআইজি (ভারপ্রাপ্ত) হিসেবে পদায়ন করা হয়। 

[৭] ডিআইজি জন মার্টিন কোট্্স, ই.এস.কিউ, আইপি ঢাকা বিভাগীয় কমিশনার কার্যালয় লাল বিল্ডিংয়ের এক অংশে (বর্তমান বাংলাদেশ সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের অফিস) ১৯১৪ সালের ২৪ জুন ঢাকা রেঞ্জ অফিসের প্রথম পতাকা উত্তোলন করে কার্যক্রম শুরু করেন। মহান স্বাধীনতাযুদ্ধের পর ১৯৭২ সালে সেগুনবাগিচা (১২ তলা ভবন), ঢাকায় রেঞ্জ অফিস স্থানান্তরিত হয়। 

[৮] সুদূর অতীত থেকে শুরু করে যে সকল কীর্তিমান বাঙ্গালি ঢাকা রেঞ্জের এই ভূখন্ডে দ্যুতি ছড়িয়েছেন, তাদের অন্যতম হলেন-অতীশ দীপঙ্কর, জগদীশ চন্দ্র বসু, ঈশা খাঁ, সুলতান গিয়াসউদ্দীন আজম শাহ, অমর্তসেন, শেরে বাংলা একে ফজলুল হক এবং আরও অনেকে। আর এই সকল দীপ্তিমান ব্যক্তিবর্গের সম্মিলিত দ্যুতি নিয়ে সবশেষে জ্যোতি ছাড়ালেন বঙ্গেয় ‘ব’ দ্বীপের সর্বকালের শ্রেষ্ঠ উদ্ভাসিত নক্ষত্র বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, যাঁর জন্ম থেকে শীর্ষে আরোহনের সিংহভাগ বিচরণ ক্ষেত্র ছিল ঢাকা  রেঞ্জে। 

[৯] জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্ম থেকে শুরু করে সুদীর্ঘকাল ধরে স্বাধীনতা সংগ্রামের ঘামে ভেজা মৃত্তিকা এবং বিচরণক্ষেত্র টুঙ্গিপাড়া থেকে ৩২ নম্বর, তৎকালীন স্বাধীনতা সংগ্রামের প্রায় সকল আন্দোলনক্ষেত্র- ঐতিহ্যবাহী এই ঢাকা রেঞ্জের অন্তর্ভূক্ত। 

[১০] মহান মুক্তিযুদ্ধে ঢাকা রেঞ্জ পুলিশের রয়েছে গৌরবময় ইতিহাস। ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ দিবাগত মধ্যরাতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বাধীনতার ঘোষণায় সাড়া দিয়ে ঢাকা রেঞ্জের অধীন ঢাকা জেলার তৎকালীন রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে কর্মরত বঙ্গবন্ধু প্রেমী বাঙ্গালি পুলিশ সদস্যরা প্রথম প্রতিরোধ গড়ে তোলেন। শাহাদাত বরণ করে ৭৮ জন বীর বাঙ্গালি পুলিশ সদস্য। 

[১১] ঈদ, পূজা, বড়দিন, বৌদ্ধ পূর্ণিমা, কিংবা সংবিধান ও রাষ্ট্র বিরোধী চক্রের ঢাকা অবরোধের কর্মসূচী যাই হোকনা কেন, ঢাকা মহানগরীর চারপাশে বিদ্যমান ১৩টি জেলা বিশিষ্ট ঢাকা রেঞ্জ যেন সার্বক্ষণিক ভ্যানগার্ডের ভূমিকায় অবতীর্ণ, চীনের সুউচ্চ ও দুর্ভেদ্য প্রাচীর। 

[১২] বর্তমান রেঞ্জ ডিআইজি সৈয়দ নুরুল ইসলামের উদ্যোগে ঢাকা রেঞ্জ প্রতিষ্ঠার ১১০ বছর পর প্রথমবারের মতো ঢাকা রেঞ্জের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদ্্যাপিত হতে যাচ্ছে। বর্তমান সরকারের ‘রূপকল্প-২০৪১’ অর্জনে এবং ‘স্মার্ট বাংলাদেশ’ বিনির্মাণে পেশাগত দক্ষতার মাধ্যমে নিরাপত্তা সেবা তৃণমূল পর্যায়ে পৌঁছে দিতে ঢাকা রেঞ্জের বিভিন্ন ইউনিটে কর্মরত সকল সদস্য সর্বদা তৎপর থাকবে। সম্পাদনা: কামরুজ্জামান

এসবি২

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়