শিরোনাম
◈ সরকারের কাছে 'আট দফা দাবি' কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের ◈ শুক্রবারের সহিংসতায় ঢাকায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩২ জনে ◈ এটা অবশ্যই কারফিউ, এটা নিয়ম অনুযায়ীই হবে এবং সেটা শুট অ্যাট সাইট হবে: ওবায়দুল কাদের ◈ কারফিউ’র পরিপত্র জারি ◈ কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার ঘোষণা কোটা আন্দোলনকারীদের ◈ ওবায়দুল কাদের কারফিউ জারি প্রসঙ্গে যা বললেন ◈ সারা দেশে কারফিউ জারি, সেনা মোতায়েনের সিদ্ধান্ত ◈ নরসিংদীর কারাগারে হামলার পর বের হয়ে গেছে কয়েকশ কয়েদি ◈ বাংলাদেশে সহিংসতা ও মৃত্যুর ঘটনায় জাতিসংঘের উদ্বেগ ◈ রাজধানীর উত্তরা, মোহাম্মদপুর, বাড্ডাসহ বিভিন্ন এলাকায় আন্দোলনকারীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ

প্রকাশিত : ০৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ০৪:৪৯ দুপুর
আপডেট : ০৪ ফেব্রুয়ারি, ২০২৩, ০৭:১১ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

মিয়ানমারের ৩৭ শহরে সামরিক আইন জারি 

মিয়ানমার জান্তা

মিহিমা আফরোজ: মিয়ানমারে সামরিক সরকার ও বিভিন্ন বিদ্রোহী সংগঠনের মধ্যে সংঘাত ক্রমশ বেড়েই চলেছে। এই বিদ্রোহের জেরে সাগাইং ও মালাউইসহ ৩৭টি শহরে সামরিক আইন জারি করেছে মিয়ানমার জান্তা সরকার। বুধবার(১ ফেব্রুয়ারি) দেশটিতে জরুরি অবস্থার মেয়াদ আরও ৬ মাস বাড়ানোর ঠিক একদিন পর এ ঘোষণা এলো। আনাদোলু এজেন্সি

মিয়ানমারের সামরিক বাহিনীর এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, সামরিক আইন জারিকৃত এসব এলাকার যেকোন ফৌজদারি মামলার শুনানি হবে জান্তা স্থাপিত আদালতে। মৃত্যুদন্ড ও যাবজ্জীবনের মতো দণ্ডের সংখ্যা বাড়ানোর সতর্কতাও দেওয়া হয়েছে । বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, মৃত্যুদণ্ড ছাড়া সামরিক আদালতের রায়ের বিরুদ্ধে কোন আপিলের সুযোগ থাকবে না। 

মূলত, মিয়ানমারের যেসব এলাকায় সেনাবাহিনী এবং বিভিন্ন বিদ্রোহী সংগঠনের মধ্যে তীব্র লড়াই শুরু হয়েছে, সেখানে সামরিক আইন জারি করার নির্দেশ দিয়েছে জান্তা সরকার। সেসব এলাকার মধ্যে অন্তর্ভূক্ত হলো, বাগো অঞ্চলের পাঁচ শহর, কাইনসেইকগি এবং কাওকারেক শহর, তানিনথারি অঞ্চল, মোন রাজ্যের ইয়ে শহর, কারেন রাজ্যের চার শহর, ম্যাগওয়ে অঞ্চলের পাঁচ শহর, সাগাইং অঞ্চলের ১০ শহর এবং ছিন রাজ্যের সাতটি শহর।

২০২১ সালের ১ ফেব্রুয়ারি সামরিক অভ্যুত্থানে অং সান সুচির সরকারকে উৎখাত করে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। এরপর তারা মান্দালে এবং ইয়াঙ্গুন অঞ্চলে সামরিক আইন জারি করে। এর আগে ২০২০ সালের নভেম্বরে সুচির ন্যাশনাল লিগ ফর ডেমোক্রেসি দল দেশটির জাতীয় নির্বাচনে জয়ী হয়। সম্পাদনা: খালিদ আহমেদ

এমএ/এএ

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়