শিরোনাম
◈ নির্মাণাধীন ভবন থেকে পড়ে ঠিকাদারের মৃত্যু ◈ মিয়ানমার সীমান্তে আগের পরিস্থিতি আর সৃষ্টি হবে না: প্রত্যাশা পররাষ্ট্রমন্ত্রীর  ◈ জাতীয় পার্টিতে কোনো বিভেদ নাই: রওশন এরশাদ ◈ সাংবাদিকরা চাষাবাদ করছেন কি না, দেখার দায়িত্ব পেলেন শাইখ সিরাজ ◈ কারামুক্ত বিএনপি নেতা আলালের স্বাস্থ্যের খোঁজ নিলেন মঈন খান ◈ গাজায় যুদ্ধ নয়, গণহত্যা চলছে: প্রধানমন্ত্রী ◈ শুক্রবার বিশ্বে বাতাস দূষণের তালিকায় ঢাকা ছিল সপ্তম ◈ মিউনিখ নিরাপত্তা সম্মেলনে নির্বাচন  নিয়ে কেউ প্রশ্ন করেনি: প্রধানমন্ত্রী ◈ লোহিত সাগরে হামলায় ব্যবহার করা হবে সাবমেরিন অস্ত্র: হুথি নেতা  ◈ ২১ বলে সেঞ্চুরি করে বিশ্ব রেকর্ড গড়লেন আসজাদ

প্রকাশিত : ২৭ নভেম্বর, ২০২৩, ০৭:২০ বিকাল
আপডেট : ২৭ নভেম্বর, ২০২৩, ০৭:২০ বিকাল

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

বাংলাদেশি রোগীদের ৪৮ ঘণ্টায় মেডিকেল ভিসা দেবে পশ্চিমবঙ্গ

খাদিজা আক্তার: [২] ২০২১ সালের তথ্য বলছে, বছরে ২৪ লাখ ৭০ হাজার বাংলাদেশি চিকিৎসার জন্য ভারতে গেছেন। পরের বছরগুলোতে এই সংখ্যা আরও বেড়েছে। তবে বর্তমানে ভারতে যাওয়ার মেডিকেল ভিসা পাওয়ার ক্ষেত্রে এক থেকে দেড় মাস পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হয় বাংলাদেশিদের। এই সময়কে দু’দিনে নামিয়ে আনতে উদ্যোগ নিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। সূত্র: হিন্দুস্থান টাইমস্

[৩] এছাড়া পশ্চিমবঙ্গে চিকিৎসা করাতে যাওয়া বাংলাদেশিদের দ্রুত ভিসা দিতে একটি নির্দিষ্ট পোর্টালও চালু করার পরিকল্পনা নিয়েছে রাজ্য সরকার।

[৪] এ বিষয়টি নিয়ে পশ্চিমবঙ্গের তথ্যপ্রযুক্তি দপ্তরের সচিব রাজীব কুমার একটি বৈঠক করেছেন রাজ্যের বেসরকারি হাসপাতালগুলোর সঙ্গে। সেখানে বাংলাদেশিদের মেডিকেল ভিসা দেওয়া নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। 

[৫] অ্যাসোসিয়েশন অভ হসপিটালস অভ ইস্টার্ন ইন্ডিয়ার সভাপতি রূপক বড়ুয়া সংবাদমাধ্যমকে জানান, ‘রাজ্য মেডিক্যাল টুরিজমের পরিধি বাড়ানোর পরিকল্পনা করেছে। ভিসার প্রক্রিয়া যদি সহজ হয় তবে আরও মানুষ রাজ্যে আসতে পারবেন চিকিৎসা করানোর জন্য।’

[৬] ইতোমধ্যে পোর্টালটি তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। আগামী সপ্তাহ দুয়েকের মধ্যে ভিসা-সংক্রান্ত পোর্টালটি চালু হয়ে যাবে। অর্থাৎ আগমী বছরের শুরু থেকেই বাংলাদেশ, নেপাল ও ভুটানের নাগরিকরা এই সুবিধা পাবেন। আবেদন করার ৪৮ ঘণ্টার মধ্যেই ভিসা মঞ্জুর হয়ে যাবে।

[৭] পশ্চিমবঙ্গের স্বাস্থ্য দপ্তরের এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, পোর্টালটিকে রোগীভিত্তিক করাই এই উদ্যোগের মূল উদ্দেশ্য। পুরো প্রক্রিয়া সম্পর্কে যাতে স্বচ্ছ তথ্য রোগীর পরিবার পান, সেদিকে নজর রাখা হবে। একই সঙ্গে এই হাসপাতালগুলোর কাজ সম্পর্কেও একটি স্পষ্ট ধারণা পাবে রোগীর পরিবার।

[৮] পোর্টাল তৈরির কাজের সঙ্গে সঙ্গে এ নিয়ে আরও কয়েকটি বৈঠক হবে। পরবর্তী বৈঠকে বাংলাদেশ উপদূতাবাসের প্রতিনিধিরা থাকতে পারেন বলে জানা গেছে।

[৯] সদ্য শেষ হওয়া বিশ্ব বঙ্গ বাণিজ্য সম্মলনে স্বাস্থ্য পরিষেবা-সংক্রান্ত বৈঠকে মেডিক্যাল ভিসা নিয়েও আলোচনা হয়। এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন ভারতের বিশিষ্ট চিকিৎসক এবং নারায়ণা হাসপাতাল গ্রুপের কর্ণধার ডা. দেবী শেঠি।

[১০] চিকিৎসা করাতে ভারতে যাওয়া বাংলাদেশিদের একটি বড় অংশ পায় পশ্চিমবঙ্গ। এর পর তারা চিকিৎসা করাতে যান তামিলনাড়ু, চেন্নাই ও সিএমসি ভেলোরে। মুম্বই-দিল্লিতে যান ১০ থেকে ১২ শতাংশ মানুষ। সম্পাদনা: তারিক আল বান্না

  • সর্বশেষ
  • জনপ্রিয়