শিরোনাম

প্রকাশিত : ২১ জানুয়ারী, ২০২২, ০৯:২৬ রাত
আপডেট : ২১ জানুয়ারী, ২০২২, ০৯:২৬ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

[১] প্রতিটি শিল্প ও বাণিজ্যিক ভবনে প্রশিক্ষিত জনবল চায় ফায়ার সার্ভিস

সুজন কৈরী: [২] দেশের প্রতিটি শিল্প, বাণিজ্যিক ও বহুতল ভবনে প্রশিক্ষিত জনবলের একটি টিম চায় ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তর। এই টিমের সংখ্যা অন্তত ৬ জন হবে। তারা ফায়ার সার্ভিস থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানে কাজ করবেন। নিয়মিত কাজের পাশাপাশি দুর্ঘটনাকালীন তা নিয়ন্ত্রণে সহযোগিতা করবেন তারা।

[৩] ফায়ার সার্ভিস বলছে, আগুন লাগলে প্রশিক্ষিত এই টিম প্রাথমিকভাবে অগ্নিনির্বাপণের কাজ করবে। এছাড়া ফায়ার ইউনিট পৌঁছার পর তাদের পানির রিজার্ভ ট্যাঙ্কি, দুর্ঘটনাকবলিত স্থানের দাহ্যবস্তুর ধরন, বৈদ্যুতিক বোর্ডসহ যাবতীয় তথ্য দেবে এবং অগ্নিনির্বাপণে সহযোগিতা করবে এই টিম।

[৪] ফায়ার সার্ভিস বলছে, আগুন লাগার পর তা নিয়ন্ত্রণে আনতে প্রচুর পানির প্রয়োজন হয়। এছাড়া দুর্ঘটনাস্থলের বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে বৈদ্যুতিক বোর্ডের তথ্য জানতে হয়। ফায়ার ইউনিটের গাড়িগুলোতে ছোটবড় ভেদে ৬ থেকে ২২ হাজার লিটার পানি থাকে। অগ্নিকাণ্ডস্থলে কাজ করার সময় প্রতিমিনিটে গাড়ি থেকে ২ হাজার লিটার পানি বের হয়। ফলে একটি ইউনিটের পানি শেষ হতে সময় লাগে ১০ থেকে ১২মিনিট। পরে আবারো পানির উৎস খুঁজতে হয়।

[৫] এতে সময় ক্ষেপণ হয়। কিন্তু অগ্নিকাণ্ডস্থলসহ আশপাশে পানির উৎস পেলে দ্রত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা যাবে। এজন্য প্রশিক্ষিত এই টিম প্রয়োজন। টিমটি ঘটনাস্থলসহ আশপাশের পানির উৎস ও বৈদ্যুতিক বোর্ডের বিষয়ে জানতে পারবে এবং ফায়ার ইউনিটকে সহযোগীতা করতে পারবে।

[৬] ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স অধিদপ্তরের মিডিয়া সেলের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহজাহান শিকদার বলেন, অগ্নি প্রতিরোধ ও নির্বাপণ আইন এবং শ্রম আইন অনুযায়ী প্রতিটি শিল্প ও বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান এবং বহুতল ভবনে (৭ তলা বা ততোধিক) মোট জনবলের ১৮ শতাংশকে অগ্নি নিরাপত্তা বিষয়ে প্রশিক্ষিত হতে হবে। অগ্নিকাণ্ডসহ যোকোনো দুর্ঘটনায় প্রশিক্ষিতরাই প্রথমে প্রাথমিকভাবে কাজ শুরু করবে। এরপর ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ঘটনাস্থলে পৌঁছার পর তারা পানির উৎস, দুর্ঘটনাস্থলের সঠিক অবস্থান, বিদ্যুতের সংযোগস্থল, প্রবেশ-বাহিরের পথ দেখানোসহ নানাবিধ তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করবে। এতে ফায়ার সার্ভিস সদস্যরা দ্রুত কাজ করতে পারবে। ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণও হ্রাস পাবে।

[৭] ১৮ শংতাশ বলা হচ্ছে এই জন্য যে, অগ্নিদুর্ঘটনার ক্ষেত্রে তিনটি টিমকে কাজ করতে হয়। টিমগুলো হচ্ছে ফায়ার ফাইটিং, রেসকিউ ও ফাস্ট এইড টিম। প্রতিটি টিমেই কমপক্ষে ৬জন সদস্য থাকতে হয়।

[৮] তিনি বলেন, এমন অনেক প্রতিষ্ঠান রয়েছে, যেখানে লোকবল কম। এ ধরনের বেশ কিছু মার্কেটও রয়েছে। সেখানে নিরাপত্তাকর্মীসহ অন্তত ৬ জনকে ফায়ার সার্ভিস থেকে প্রশিক্ষণ নিতে হবে। তাহলে মার্কেটসহ ছোট প্রতিষ্ঠানে আগুন লাগলে দ্রুত নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হবে।

 

  • সর্বশেষ