প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভোটে হেরে রাস্তা বন্ধ করে দেওয়ার অভিযোগ আ.লীগ নেতার রিরুদ্ধে

নিউজ ডেস্ক: বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় নির্বাচনে হেরে যাওয়ায় ভোটারদের ওপর ক্ষুব্ধ হয়ে সাবেক এক ইউপি সদস্য মানুষের চলাচলের সরকারি রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। উপজেলার খামারকান্দি ইউনিয়নের মাগুড়া তাইর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

সাবেক ওই ইউপি সদস্যের নাম এনামুল হক রানা। তিনি ওই ইউনিয়নের ছয় নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

জানা গেছে, গত ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় দফায় অনুষ্ঠিত খামারকান্দি ইউপি নির্বাচনে মেম্বার পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে হেরে যান রানা। এতে ক্ষোভে তার বাড়ির পাশ দিয়ে যাওয়া চলাচলের সরকারি রাস্তা টিনের বেড়া এবং ইটের প্রাচীর দিয়ে বন্ধ করেন। স্থানীয়রা বলছেন, জায়গাটি খামারকান্দি মৌজার রেকর্ড শর্তে বগুড়া জেলা প্রশাসকের নামে ১নং খাস খতিয়ানভূক্ত। এ ঘটনায় গত ২১ নভেম্বর রানার বিরুদ্ধে জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন এলাকাবাসী। অভিযোগের অনুলিপি সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় এবং দপ্তরেও পাঠানো হয়েছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন ভুক্তভোগী জানান, রানা ভোটে হেরে গিয়ে ক্ষমতার দাপটে ৮ থেকে ১০টি পরিবারের চলাচলের একমাত্র রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছেন। এতে বিপাকে পড়েছেন তারা। তিনি এলাকায় প্রভাবশালী হওয়ায় কেউ তার বিরুদ্ধে মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছেন না। কেউ প্রতিবাদ করলে তাকে হুমকি-ধমকি দিচ্ছেন রানা।

এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে এনামুল হক রানাকে একাধিকবার ফোন করা হলেও তার সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি। তবে তার বাবা আব্দুল হান্নান জানিয়েছেন, রাস্তার জায়গাটি সরকারি তা ঠিক। কিন্তু সেটি তাদের বাড়ির ওপর দিয়ে যাওয়ায় সেটা বন্ধ করে পাশ দিয়ে রাস্তা দিয়েছেন।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ময়নুল ইসলাম জানান, তিনি অভিযোগ পেয়েছেন। ঘটনা তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।

সর্বাধিক পঠিত