প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ৫ বছরে ৪,১৭৭ জনকে ভারতীয় নাগরিকত্ব দেওয়া হয়েছে, ১৮৪ জন বাংলাদেশি

রাশিদুল ইসলাম : [২] ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার সংসদের নিম্নকক্ষ লোকসভাকে এ তথ্য জানিয়েছে। মঙ্গলবার সংসদে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই এক প্রশ্নের লিখিত জবাবে বলেন, গত পাঁচ বছরে ভারতীয় নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করেছেন ১০ হাজার ৬৪৫ জন, যার মধ্যে ২২৭ জন মার্কিন, ৭ হাজার ৭৮২ জন পাকিস্তান, ৭৯৫ জন আফগানিস্তান এবং ১৮৪ জন বাংলাদেশের। পারসটুডে

[৩] মন্ত্রী নিত্যান্দ রাই আরও বলেন, ২০১৬ সালে ১১০৬ জনকে, ২০১৭ সালে ৮১৭ জনকে, ২০১৮ সালে ৬২৮ জনকে, ২০১৯ সালে ৯৮৭ জনকে এবং ২০২০ সালে ৬৩৯ জনকে ভারতীয় নাগরিকত্ব দেওয়া হয়েছে।

[৪] লোকসভায় কেরালার কংগ্রেস এমপি হিবি ইডেনের উত্থাপিত প্রশ্নের জবাবে, কেন্দ্রীয় মন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই জানান, সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ) ২০১৯ সালের ১২ ডিসেম্বর বিজ্ঞাপিত করা হয়েছিল এবং ২০২০ সালের ১০ জানুয়ারী কার্যকর হয়েছিল। ‘সিএএ’-এর আওতায় থাকা ব্যক্তিরা নিয়মগুলো অবহিত হওয়ার পরে নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করতে পারেন।

[৫] অন্যদিকে, রাজ্যসভায় স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী নিত্যানন্দ রাই এক প্রশ্নের লিখিত জবাবে বলেছেন, বর্তমানে ৪,৫৫৭ আফগান নাগরিক ভিসার মেয়াদ বাড়িয়ে ভারতে অবস্থান করছেন। ২৪ নভেম্বর পর্যন্ত, ২০০টি ই-ইমার্জেন্সি এক্স-মিস (মিসলেনিয়াস) ভিসাও ইস্যু করা হয়েছে।

[৬] মন্ত্রী নিত্যানন্দ বলেন, ‘গত ৫ বছরে ৬ লাখের বেশি মানুষ ভারতের নাগরিকত্ব ছেড়ে দিয়েছেন।’ অর্থাৎ দৈনিক কমপক্ষে ৩০০ লোক ভারতীয় নাগরিকত্ব ত্যাগ করেছেন।

[৭] ভারতীয় নাগরিকত্ব আইন, ১৯৯৫-এর অধীনে, ভারতের নাগরিকদের দু’টি দেশের নাগরিকত্ব গ্রহণ করার অনুমতি নেই। যদি কোনও ব্যক্তির ভারতীয় পাসপোর্ট থাকে এবং অন্য দেশের নাগরিকত্বও অর্জন করে, তবে সেক্ষেত্রে তাকে অবিলম্বে ভারতীয় পাসপোর্ট সমর্পণ করতে হবে।

[৮] অন্য কথায়, যদি কোনো ব্যক্তি বিদেশে থাকার সময় ভারতের নাগরিকত্ব ত্যাগ করে থাকেন এবং ভারতে ফিরে এসে এখানকার নাগরিক হতে চান, তাহলে তার ক্ষেত্রে সেই নিয়ম প্রযোজ্য হবে যা নতুন দেশে নাগরিকত্ব নেওয়ার জন্য বাস্তবায়িত হয়। এই আইনের কারণে, কোনও ব্যক্তি যদি বিদেশে বসবাসের সময় নাগরিক হন, তবে তার ভারতের নাগরিকত্ব ত্যাগ করা ছাড়া কোনও উপায় নেই।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত