প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] জবিতে আবারও প্রফেশনাল কোর্স চালুর দাবি

অপূর্ব চৌধুরী: [২] জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) প্রফেশনাল কোর্স চালুর দাবি জানিয়েছে শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। তাদের দাবি বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রফেশনাল কোর্স চালু থাকলে বিভিন্ন জায়গার কর্মজীবীরা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনার সুযোগ পায়।তাই বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মিত শিক্ষার্থীদের সাথে বিভিন্ন বিষয়ে তাদের অভিজ্ঞতা শেয়ার করার সুযোগ পাবেন।

[৩] জানা যায়, ২০১৯ সালের ১২ ডিসেম্বর জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল প্রোগ্রামে নতুনভাবে শিক্ষার্থী ভর্তি না করার নির্দেশনা দেন। এই নির্দেশনার পর থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে সকল প্রফেশনাল কোর্স বন্ধ রয়েছে।

[৪] তবে গত ৮ নভেম্বর অনুষ্ঠিত শিক্ষক সমিতির নির্বাচনের পূর্বে নীল দলের দুই গ্রুপ নির্বাচনের ইশতেহারে প্রফেশনাল কোর্স চালুর দাবি রাখেন।

[৫] বিশ্ববিদ্যালয়ের একাউন্টিং এন্ড ইনফরমেশন সিস্টেমস বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক মোঃ আবদুল মান্নান বলেন, পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রফেশনাল কোর্স চালু থাকলে নিয়মিত শিক্ষার্থীদের সাথে প্রফেশনাল শিক্ষার্থীদের জ্ঞান ও অভিজ্ঞতার সমন্বয় ঘটে সুযোগ সাপেক্ষে। শুক্রবার ও শনিবার বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকে। এসময় দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে কর্মরতরা প্রফেশানাল ডিগ্রি করার সুযোগ পায়।

[৬] তিনি বলেন, বিশ্বের সকল বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রফেশনাল কোর্স চালু রয়েছে। সেখানে দেশ ও বিদেশের শিক্ষার্থীরা প্রফেশনাল ডিগ্রি নেয়ার সুযোগ পায়। কিন্তু দেশের কয়েকটি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রফেশনাল কোর্স বন্ধ রয়েছে। এতে করে শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রফেশনাল কোর্স করছে। প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের এসব প্রফেশনাল কোর্সের মান নিয়ে প্রশ্ন আছে।

[৭] অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. আইনুল ইসলাম বলেন, সেশনজট ও বিভিন্ন কারণে বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রফেশনাল কোর্স বন্ধ করা হয়েছে। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা ঠিকই বিভিন্ন প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্লাস নিচ্ছেন। অনেক সময় তারা প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাস নিয়ে ব্যস্ত থাকেন।

[৮] তিনি বলেন, নিয়মিত শিক্ষার্থীদের মাস্টার্স কোর্সে দুই সেমিস্টারে ১০টি কোর্স পড়ানো হয়। কিন্তু প্রফেশনাল কোর্সে মাস্টার্সে চারটি সেমিস্টারে বিশটি কোর্স পড়ানো হয়। প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেশনাল কোর্সের মানের চেয়ে পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের পড়ালেখার মান অনেক ভালো।

[৯] এবিষয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. মো. ইমদাদুল হক বলেন, প্রফেশনাল কোর্স চালুর বিষয়ে আমাদের ইচ্ছে আছে। আমাদের শিক্ষকরা কোয়ালিটির দিক থেকে সেরা। এই বিষয়টি নিয়ে একাডেমিক কাউন্সিলের সভায় আমরা আলোচনা করে সিন্ধান্ত নিবো। শিক্ষকরা রাজি থাকলে ইউজিসির সাথে কথা বলে খুব শীঘ্রই আমরা চালু করতে পারবো।

[১০] তিনি আরও বলেন, প্রফেশনাল কোর্স চালু করলে আমরা নীতিমালা ঠিক করে দিবো। কোন কোন বিভাগ চালু করতে পারবে, চালু করলেও কয়টা ব্যাচ ভর্তি নিতে পারবে এটার একটা নীতিমালা থাকবে। কোনোভাবেই রেগুলার শিক্ষার্থীদের সমস্যা যাতে না হয়, এটা আমরা সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে দেখবো। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত