প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মোহন রায়হান: ধিক্ শত ধিক্ কুলাঙ্গার জিয়াউদ্দিন বাবলু আর তার স্তাবকদের!

মোহন রায়হান: জিয়াউদ্দিন বাবলু। উচ্চারণ মাত্র শরীরের প্রতিটি রোমক‚প প্রচÐ ঘৃণায় রি রি করে ওঠে। বাংলাদেশ ছাত্রলীগ (মুনীর-হাসিব) যে কমিটির, আমি নিজে সাহিত্য সম্পাদক ছিলাম, সেই কমিটির একজন সাধারণ সদস্য ছিলো এই বেঈমান বাবলু। জাসদ ভেঙে বাসদ হলে বাসদ ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক হয় বাবলু। জাসদ-বাসদ ভাঙনের সুযোগে ডাকসুরও জিএস হয় এই ধান্ধাবাজ। আগাগোড়া সুযোগ সন্ধানী, সুবিধাবাদী, ভÐ, প্রতারক, স্বৈরাচারের গোপন চর বর্ণচোরা বাবলু স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে সর্বপ্রথম সংগ্রামী ছাত্রসমাজের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করে ১৯৮৩ সালের ১৪ ফেব্রæয়ারি রাতে শহীদদের রক্তমাখা লাশ মাড়িয়ে অবৈধ ক্ষমতার দখলদার স্বৈরশাহী এরশাদের প্রকাশ্য দালাল হিসেবে আত্মপ্রকাশ করে। সারাদেশের মানুষের চরম ঘৃণার থুথু গিলে পদলেহী বাবলু নিলর্জ্জতার পরাকাষ্ঠা প্রদর্শন করে। বিশেষ কারণে হোমো এরশাদের অতি প্রিয় লালটু বাবলু- শিক্ষা, বিমান, বিদ্যুৎ ও অর্থ প্রতিমন্ত্রীত্ব পেয়ে হাজার কোটি টাকা লুটে নিয়ে বিশাল বিত্ত-বৈভবের পাহাড় গড়ে তোলে।

কাপুরুষ বাবলু একবার ঢাকা শহরের একশ সশস্ত্র সন্ত্রাসীর একটি দল পাঠায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দখল করতে। আমরা খালি হাতে ইট, পাথর ছুড়ে সেসব ভয়ংকর সন্ত্রাসীদের মোকাবিলা করি। ভোরবেলা থেকে প্রায় দুপুর পর্যন্ত অস্ত্র বনাম আদর্শের তুমুল যুদ্ধের পর স্বৈরসন্ত্রাসীরা চোরের মতো পালিয়ে যেতে বাধ্য হয়। কুলাঙ্গার বাবলুর নানা অপকর্মের মধ্যে অন্যতম, দেশের কিংবদন্তি ব্যাংকার, দেশপ্রেমিক লুৎফর রহমান সরকার প্রবর্তিত বিশ্ববিদ্যালয় কর্মসংস্থান প্রকল্প-(বিকল্প) দখল করতে না পেরে এই সোনার মানুষটিকে জঘন্য চক্রান্ত ও ষড়যন্ত্রের মাধ্যমে গ্রেফতার করিয়ে জেলে পাঠানো।

আমার জীবনের একটি বড় পণ ছিলো, সেই অপরাধের কারণে ইবলিশটার গালে একটি কষে চড় মারার। দেশের একজন বিশিষ্ট ব্যক্তির (নাম মনে করতে পারছি না) জানাজায় খবিশ বাবলু একবার ঢাবির মসজিদ প্রাঙ্গণে এসেছিলো, আমি ধেয়ে গিয়েছিলাম মারতে কিন্তু বন্ধুরা সবাই থামিয়ে দিলো, জানাজায় মারধর ঠিক হবে না বলে। আফসোস রয়ে গেলো, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলঙ্ক, ডাকসুর নিকৃষ্টতম দৃষ্টান্ত জিয়াউদ্দিন বাবলু বিনা আঁচড়ে চলে গেলো!

জয়নাল, জাফর, দীপালী সাহা, মোজাম্মেল, কাঞ্চন, আইয়ুব, রাউফুন বসুনিয়া, তাজুল ইসলাম, শাজাহান সিরাজ, সেলিম, দেলোয়ার, ডা. মিলন, জেহাদ, নূর হোসেনসহ অসংখ্য শহীদের হত্যাকারী খুনি জান্তা এরশাদের বিরল দোসর পাচাটা বাবলুর মৃত্যুতে শোক-দুঃখ-সমবেদনা প্রকাশ করে তারা কারা? সেই বেঈমান, বিশ্বাসঘাতক, ভÐ, প্রতারক, মীরজাফর বাবলু আর তার জন্য যাদের আহাজারি ধিক্ তাদের শত ধিক্! লেখক : কবি।

সর্বশেষ