প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ‘ক্লিন ফিড’ না মানায় দেশের সংস্কৃতি ও মিডিয়া ইন্ডাস্ট্রি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে: তথ্যমন্ত্রী

মিনহাজুল আবেদীন: [২] শুক্রবার (১ অক্টোবর) রাজধানীর তেজগাঁওয়ে ইমপ্রেস গ্রুপের কার্যালয়ে চ্যানেল আই-এর সম্প্রচারের ২৩তম বর্ষে পদার্পণ অনুষ্ঠানে তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ এমন মন্তব্য করেন। ডিবিসি টিভি

[৩] বিজ্ঞাপনমুক্ত সম্প্রচার কার্যকরের বিষয়ে মন্ত্রী বলেন, বিদেশি টিভি চ্যানেলগুলোর বিজ্ঞাপনমুক্ত সম্প্রচার (ক্লিন ফিড) না মানার কারণে আমরাই ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছি। কয়েক হাজার কোটি টাকা, যা দেশে লগ্নি হতো তা বিদেশের চ্যানেলে লগ্নি হচ্ছে। আইন ভঙ্গ করে বিদেশি চ্যানেলে যদি বিজ্ঞাপন না দেখানো হতো, তা হলে দেশের মিডিয়া ইন্ডাস্ট্রিগুলো লাভবান হতো। দেশের অর্থনীতি লাভবান হতো। ঢাকা পোস্ট

[৪] তার ভাষায়, ‘১ অক্টোবর থেকে আমরা সারাদেশে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করবো। কোনো বিদেশি চ্যানেলে ক্লিন ফিড দেখানো না হলে এবং মন্ত্রণালয়, টেলিভিশন ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন ও কেবল অপারেটর ত্রিপক্ষীয় বৈঠকের মাধ্যমে কেবল লাইনে সম্প্রচারের জন্য টেলিভিশন চ্যানেলগুলোর নির্ধারিত ক্রমের ব্যত্যয় হলে বা কোনো কেবল অপারেটর আইন ভঙ্গ করে নিজেরা বিজ্ঞাপন বা অনুষ্ঠান প্রদর্শন করলে বা আইনের অন্য কোনো ব্যত্যয় ঘটালে সংশ্লিষ্ট চ্যানেল ডাউনলিংকের অনুমতিপ্রাপ্ত ডিস্ট্রিবিউটরদের এবং কেবল অপারেটরদের ওপরই আইন ভঙ্গের দায় বর্তাবে। আগামীকাল থেকে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’ বাংলা ট্রিবিউন

[৫] ওটিটি (ওভার দ্য টপ) প্লাটফর্ম নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এটি নিয়ে একটি নীতিমালা প্রণয়নের কাজ চলছে। খসড়া সম্পন্ন হয়েছে। নীতিমালা পাস হলে, প্লাটফর্মগুলোকে তা অনুসরণ করতে হবে। কোনো ব্যত্যয় হলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে’।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত