প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সীমান্ত খুলে দেয় বিএসএফ, তাণ্ডব চালায় হাতির পাল, ৫০ একর জমির ধান নষ্ট

আল আমিন: [২] সন্ধ্যা নামতেই হালুয়াঘাট সীমান্তবর্তী এলাকার জামগড়া মহিষলেটি, ধোপাঝুড়ি, কোচপাড়া, রঙ্গমপাড়া এবং কড়ইতলী এলাকায় চলে হাতির তাণ্ডব।

[৩] স্থানীয় কৃষি বিভাগের দাবি, পাহাড়ি বন্যহাতির তাণ্ডবে উপজেলার সীমান্তবর্তী ভূবনকুড়া ইউনিয়েনের কয়েকটি গ্রামে ৩২ জন কৃষকের প্রায় ৪০ একর জমির ফসল নষ্ট হয়েছে। তবে বাস্তবে এ ক্ষতির পরিমাণ আরও বেশি হবে বলে জানিয়েছে পাহাড়ি কৃষকরা।

[৪] ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকরা জানায়, যে জমি থেকে তাদের সারা বছরের খাদ্য চাহিদা পূরণ হয়, এ বছর সেই জমির ধান সব নষ্ট করে দিয়েছে হাতির পাল। এখন তারা কিভাবে বছর পার করবে, তা নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছে।

[৫] উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মাসুদুর রহমান বলেন, অন্তত ৪০ একর জমির ফসল নষ্ট হয়েছে। ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের তালিকা ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠানো হয়েছে।

[৬] হালুয়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রেজাউল করিম বলেন, প্রতি বছরের চাইতে এ বছর হাতির অত্যাচার বেশি। ভারতীয় সীমান্তবর্তী এলাকায় হাতি বেশি তাণ্ডব চালালে বিএসএফ রাতে সিমান্ত গেইট খুলে দেয়। এতে বাংলাদেশে সিমান্তের কিছুটা এলাকায় কাঁটাতারের বেড়া না থাকায় অবাধে হাতির পাল নেমে এসে কৃষকের ফসল নষ্ট।

[৭] তিনি বলেন, হাতি তাড়াতে প্রয়োজনীয় টর্চলাইট, লাঠি, মশাল, পটকা ও বাঁশি দেয়া হয়েছে। এগুলো নিয়ে রাত জেগে কৃষকরা পাহাড়া দেয় এবং মশাল জালিয়ে, পটকা ফুটিয়ে, বাশি বাজিয়ে হাতি রাতভর হাতি তাড়ায়।

[৯] এ বিষয়ে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম. সুরুজ মিয়া বলেন, হাতি তাড়াতে গ্রাামে টিম করে দেয়া হয়েছে। তবে একটি স্থায়ী সমাধান প্রয়োজন, যাতে কৃষকরা আর ক্ষতির মুখে না পড়ে। সম্পাদনা : খালিদ আহমেদ

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত