প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] উত্তরা আগ্নেয়াস্ত্র প্রদর্শন করে ত্রাস সৃষ্টি ও জনমনে ভীতির অভিযোগে আটক এক

এফ এ নয়ন: [২] রাজধানীতে আগ্নেয়াস্ত্র প্রদর্শন করে ত্রাস সৃষ্টি ও জনমনে ভীতি সঞ্চার করার অভিযোগে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। আটককৃতের নাম মেজবাহ উদ্দিন সরকার ওরফে রুবেল (৪৪), পিতার নাম -মৃত মোহাম্মদ আলী সরকার, থানা- উত্তরা পশ্চিম, জেলা- ঢাকা।

[৩] বৃহস্পতিবার র‍্যাব-১ এর (অপারেশন অফিসার) এএসপি নোমান আহমদ এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, বুধবার দিনগত রাত সোয়া ২ টার দিকে রাজধানীর উত্তরা পশ্চিম থানার ৭নং সেক্টর এলাকাস্থ রোড নং-১২/এ, হাউজ নং-০৩, ফ্ল্যাট নং-৪এ/৪বি বাসায় অভিযান চালিয়ে তাকে আটক করা হয়।

[৪] র‍্যাব-১ এর সহকারী পরিচালক ও মিডিয়া অফিসার আরো জানান, এ সময় তার কাছ থেকে একটি বিদেশি পিস্তল, দুটি ম্যাগাজিন, ৫০ রাউন্ড গুলি, একটি পিস্তল বক্স, দুটি পিস্তল কভার, একটি পিস্তলের লাইসেন্স ও দুটি মোবাইল উদ্ধার করা হয়।

[৫] র‍্যাব-১ এর এ কর্মকর্তা জানান, ভার্চুয়াল জগতে নজরদারির ধারাবাহিকতায় র‍্যাব-১ সাইবার মনিটরিং টিম সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি সন্দেহমূলক আইডি শনাক্ত করে। ওই আইডিতে আগ্নেয়াস্ত্র প্রদর্শন করে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টির কিছু স্থিরচিত্র দেখা যায়। এর প্রেক্ষিতে মেজবাহ উদ্দিন সরকারের অবস্থান শনাক্ত করে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

[৬] ধৃত আসমিকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানা যায়, মো. মেজবাহ উদ্দিন সরকার ওরফে রুবেল তার দেহরক্ষী পলাতক ফারুকসহ অজ্ঞাতনামা আরো ২ জনকে নিয়ে উত্তরা পশ্চিম থানা এলাকা, টঙ্গী এলাকাসহ বিভিন্ন এলাকায় আধিপত্য বিস্তার, জনমনে ভীতি সৃষ্টি করার উদ্দেশ্যে প্রকাশ্যে অস্ত্র প্রদর্শন করে থাকে। সে এলাকায় আধিপত্য বিস্তারের জন্য অস্ত্র প্রদর্শন করার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তার ব্যক্তিগত আইডিতে আপলোড করে।

[৭] তিনি আরও জানান, মেজবাহ উদ্দিন সরকার তার দেহরক্ষী পলাতক ফারুকসহ অজ্ঞাতনামা আরও দুইজনকে নিয়ে উত্তরা পশ্চিম থানা, টঙ্গীসহ বিভিন্ন এলাকায় আধিপত্য বিস্তারে প্রকাশ্যে অস্ত্র প্রদর্শন করে থাকেন। আধিপত্য বিস্তারের জন্যই অস্ত্র প্রদর্শনের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে আপলোড করেন। তিনি অসৎ উদ্দেশ্যে অবৈধভাবে অস্ত্রসহ তিনজন দেহরক্ষী নিয়োগ দেন।

[৮] একটি সূএে জানা যায়, মেজবাহ উদ্দিন সরকার ওরফে রুবেল জন্ম টংগী এলাকায় হলেও সে দীর্ঘ দিন ধরে উত্তরা বসবাস করে আসছিল। টংগী বাজার ও আরিচপুরে তার একাধিক বাড়ি ও কোটি কোটি টাকার বিষয় সম্পত্তি রয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে ধৃত আসামিকে উত্তরা পশ্চিম থানা পুলিশের নিকট সোপর্দ করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হয়েছে। সম্পাদনা: সঞ্চয় বিশ্বাস

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত