প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] রাজশাহীর পৃথক স্থানে মাছচাষী ও নৈশ্যপ্রহরীর মরদেহ উদ্ধার

মঈন উদ্দীন: [২] রাজশাহীতে এক মৎস্য চাষী ও এক নৈশ্যপ্রহরীর হাত, পা ও মুখ বাঁধা লাশ পাওয়া গেছে। তাঁদের হত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশ জানিয়েছে। রোববার দিবাগত রাতে রাজশাহী নগরীর নওদাপাড়া এবং জেলার গোদাগাড়ী উপজেলার লালাদীঘি এলাকায় এ দুটি হত্যাকাণ্ড ঘটে।

[৩] গোদাগাড়ী উপজেলায় নিহত ব্যক্তির নাম মাসুদ রানা (৪৫)। উপজেলার চাপাল গ্রামে তাঁর বাড়ি। বাবার নাম আবদুল খালেক। রাজশাহী নগরীর শাহমখদুম থানার নওদাপাড়ায় নিহত ব্যক্তির নাম আনিসুর রহমান ওরফে নারা (৭০)। রোড নওদাপাড়া এলাকায় তাঁর বাড়ি। বাবার নাম মৃত ইয়াসিন আলী।

[৪] গোদাগাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কামরুল ইসলাম জানান, নিহত মাসুদ রানা গোদাগাড়ী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবদুর রশিদের ভাগনে। এ ছাড়া তিনি উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি আলমগীর কবীর স্বপনের ভাই। ওসি জানান, মাসুদ রানা ও তাঁর এলাকার মো. লিটন নামের আরেক ব্যক্তি একসঙ্গে একটি সরকারি পুকুর ইজারা নিয়ে মাছ চাষ করেন। সোমবার ভোররাতে পুকুরে মাছ ধরার কথা ছিলো। এ কারণে রোববার দিবাগত রাতে তাঁরা দুজন পুকুরে যান। তাঁরা পুকুরপাড়ে টং ঘরে ছিলেন।

[৫] এরপর রাত ৩টার দিকে একদল দুর্বৃত্ত ওই পুকুরে মাছ চুরি করতে যায়। তাঁরা লিটন ও মাসুদের হাত, পা ও মুখ বেঁধে ফেলে রাখে। এরপর তাঁরা পুকুরে জাল ফেলে মাছ ধরতে থাকে। এরই মধ্যে লিটন ও মাসুদের ঠিক করা জেলেরা মাছ ধরতে চলে আসে। তাঁদের দেখে চোরেরা জাল ও মাছ ফেলে পালিয়ে যায়। এরপর জেলেরা টংঘরে গিয়ে লিটনের হাত-পায়ের বাঁধন খুলে দেন। তখন দেখা যায় মাসুদ মারা গেছেন।

[৬] এদিকে শাহমখদুম থানার ওসি সাইফুল ইসলাম খান জানান, নওদাপাড়া বাজারে একটি অটোরিকশার গ্যারেজের নৈশ্যপ্রহরী ছিলেন আনিসুর রহমান। সোমবার সকালে গ্যারেজের ভেতর তাঁর হাত, পা ও মুখ বাঁধা লাশ পড়ে থাকতে দেখে স্থানীয়রা পুলিশে খবর দেন। এরপর লাশটি ময়নাতদন্তের জন্য রামেকের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

[৭] ওসি আরও জানান, গ্যারেজ থেকে একটি ব্যাটারিচালিত অটোরিকশা চুরি হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, আনিসুরকে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর অটোরিকশাটি চুরি করে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় হত্যা মামলা হবে বলেও জানান ওসি।

সর্বাধিক পঠিত