প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ফরিদপুরে চাঁদাবাজির মামলায় কথিত সাংবাদিক আটকে জনমনে স্বস্তি, মিষ্টি বিতরণ

হারুন-অর-রশীদ: [২] ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গায় চাঁদাবাজির দায়ে কথিত সাংবাদিক আরিফুজ্জামান চাকলাদার (আপেল) পুলিশের হাতে গ্রেপ্তারের খবরে জনমনে স্বস্তি নেমে এসেছে। এ আটকের খবরে সাধারণ মানুষ মিষ্টি বিতরণ করছে।

[৩] শুক্রবার (২০ আগস্ট) সকাল ১১টায় উপজেলার বিভিন্ন স্থানে খুশিতে সাধারণ জনতা এ মিষ্টি বিতরণ করেন। এসময় বাকি সব কথিত সাংবাদিকদেরও আটক করার দাবি উঠে।

[৪] এলাকাবাসী ও পুলিশ জানায়, চাঁদাবাজি মামলায় বৃহস্পতিবার (১৯ আগস্ট) দুপুরে উপজেলা সদর বাজারের চৌরাস্তা নামক এলাকা থেকে কথিত সাংবাদিক আরিফুজ্জামান চাকলাদার আপেলকে আটক করা হয়। আপেল উপজেলার দেউলী গ্রামের আঃ কাদের চাকলাদারের ছেলে। এ ঘটনায় মো. লায়েকুজ্জামান নামের আরো এক কথিত সাংবাদিকের নামে এজাহার দায়ের করা হয়।

[৫] এজাহার ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আরিফুজ্জামান চকলাদার (আপেল) ও মো. লায়েকুজ্জামানসহ কিছু কথিত সাংবাদিক এলাকায় মানুষকে জিম্মি করে ও ভয় ভীতি দেখিয়ে সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজি করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৩ আগস্ট সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় উপজেলার বুড়াইচ এলাকার আরব আলী নামের এক ব্যক্তির বাড়িতে গিয়ে চাঁদা দাবি করে। এ ঘটনায় আরব আলীর ভাতিজা বিল্লাল সরদার থানায় একটি চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করে। এরই প্রেক্ষিতে পুলিশ গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে আপেলকে আটক করে।

[৬] আলফাডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ ওয়াহিদুজ্জামান বলেন, আরিফুজ্জামান চাকলাদার (আপেল) নামের এক ব্যক্তিকে আটক করেছে পুলিশ। আপেলের বিরুদ্ধে এলাকায় সাংবাদিক পরিচয়ে মানুষকে জিম্মি করে টাকা আদায়ের অভিযোগ রয়েছে। এ রকম কথিত সাংবাদিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পুলিশ কাজ করছে।

[৭] ফরিদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) মোঃ তরিকুল ইসলাম বলেন, পুলিশ আইনশৃঙ্খলা সমুন্নত রাখতে যে কোনো অপরাধীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিয়ে আসছে। কারো বিরুদ্ধে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পাওয়া গেলে তাকে কোনো রকম ছাড় দেওয়া হচ্ছে না। কোনো ব্যক্তি সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে চাঁদাবাজি কিংবা কোনো নিরীহ মানুষকে জিম্মি করে হয়রানি করলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। কাউকে ছাড় দেওয়ার সুযোগ নেই। সম্পাদনা: হ্যাপি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত