প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কোভিড মহামারিতে ক্ষতিগ্রস্ত দেশগুলোকে সাড়ে ৬ শ বিলিয়ন ডলার সহায়তা দেবে আইএমএফ

রাশিদ রিয়াজ : ইন্টারন্যাশনাল মনিটারি ফান্ড বা আইএমএফ’র গভর্নরস এ তহবিল অনুমোদন দিয়ে বলেছে কোভিড মহামারীতে যেসব দেশ অর্থনৈতিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সেসব দেশ এ ধরনের সহায়তা পাবে। আইএমএফ’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর ক্রিস্টালিনা জর্জিভা এ সিদ্ধান্তকে ঐতিহাসিক অভিহিত করে বলেছেন নতুন এই সহায়তা ১৯০টি দেশের জন্যে মহামারি পরবর্তী অর্থনৈতিক সংকট মোকাবেলায় কাজে লাগবে। তবে আইএমএফ’র এধরনের সহায়তার সমালোচনা করে মার্কিন কংগ্রেসে রিপাবলিকান সদস্যরা বলেছেন এধরনের অর্থনৈতিক সহায়তা মার্কিন প্রতিপক্ষ দেশ যেমন চীন, রাশিয়া ও ইরানের মত দেশগুলোকে উপকৃত করবে। আইএমএফ’র এধরনের সহায়তা এর আগে সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের প্রশাসনের নেয়া অবস্থানের বিপরীত। তবে বাইডেন প্রশাসন গত ফেব্রুয়ারিতে ক্ষমতা নেওয়ার পর আইএমএফ এধরনের সহায়তার জন্যে উদ্যোগ নেয়। আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থাগুলো আইএমএফ’র এধরনের উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়েছে। ধর্মীয় সম্পার্কিত উন্নয়ন গোষ্ঠী জুবিলি ইউএসএ নেটওয়ার্কের নির্বাহী পরিচালক এরিক লেকম্প্ট বলেছেন আইএমএফ’র পদক্ষেপ উন্নয়নশীল দেশগুলিকে অবিলম্বে ২০০ বিলিয়ন ডলারের বেশি সহায়তা পাওয়ার সুযোগ সৃষ্টি করেছে। তিনি বলেন, যেসব ধনী দেশ জরুরি রিজার্ভ হিসেবে সহায়তা পেয়ে থাকে তাদের উচিত সেই সম্পদ মহামারিতে সংগ্রামরত উন্নয়নশীল দেশগুলিতে স্থানান্তর করা। আইএমএফ

আইএমএফ’র এধরনের অর্থনৈতিক সহায়তা এসডিআর বরাদ্দ (স্পেশাল ড্রইং রাইট) হিসেবে পরিচিত যা সদস্য দেশগুলোর বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ভারসাম্যপূর্ণ করে রাখার একটি উপায়, যা সদস্য দেশগুলোর আরো ব্যয়বহুল অভ্যন্তরীণ বা বিদেশি ঋণের ওপর নির্ভরতা কমাতে সাহায্য করে। কোভিড ভ্যাকসিন পাওয়ার ছয় মাসেরও বেশি সময় পর এ ভাইরাস জনিত রোগে মৃত্যু হার কমে এসেছে। গত জানুয়ারিতে প্রতিদিন কোভিড মহামারিতে বিশে^ প্রতিদিন ১৮ হাজারের বেশি মৃত্যু এখন নেমেছে ৭ হাজার ৮শ’তে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা গত সপ্তাহে ৫৪ হাজারের কম মৃত্যুর রেকর্ড করেছে, যা গত অক্টোবরের পর থেকে সর্বনিম্ন সাপ্তাহিক। বিশ^জুড়ে কোভিডে ৪ মিলিয়ন মানুষের মৃত্যু বৈষম্য সৃষ্টি করেছে। তবে ভ্যাকসিন ঘাটতির কারণে আফ্রিকার দেশগুলো ছাড়াও গরিব দেশগুলোতে যথাযথভাবে টিকা দেওয়া সম্ভব হচ্ছে না। আইএমএফ’র এধরনের এসডিআর বরাদ্দ কার্যকর হবে আগামী ২৩ আগস্ট থেকে। সদস্যদেশগুলো বিদ্যমান কোটা অনুসারে সহায়তা পাবে। কম আয়ের দেশ ছাড়াও উন্নয়নশীল দেশের বিকাশমান বাজারে অন্তত ২৭৫ বিলিয়ন ডলার সহায়তা দেবে আইএমএফ। আইএমএফ’র ম্যানেজিং ডিরেক্টর জর্জিভা বলেন মহামারিজনিত অর্থনৈতিক ক্ষতি পুনরুদ্ধারে এবং প্রবৃদ্ধির গতি ধরে রাখতে সদস্যদেশগুলোকে এ সহায়তা দেওয়া হচ্ছে। উপরন্তু সদস্য দেশগুলোর বৈদেশিক মুদ্রা রিজার্ভ ঘাটতি মেটাতে এ সহায়তা কাজে লাগবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত