প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] চোরাই স্বর্ণালংকার ও টাকাসহ গৃহকর্মী গ্রেপ্তার

সুজন কৈরী : [২] রাজধানীর রামপুরার একটি বাসা থেকে চুরি হওয়া স্বর্ণালঙ্কার ও টাকা উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেই সঙ্গে ঘটনায় জড়িত ওই বাসার গৃহকর্মী নুপুর আক্তারকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অনলাইনের মাধ্যমে ১০ হাজার টাকা বেতনে নিয়োগ পান গৃহকর্মী।

[৩] শনিবার কুমিল্লার লাকসামের বাউরতলা এলাকা থেকে গৃহকর্মী নুপুরকে গ্রেপ্তার করে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) গোয়েন্দা রমনা বিভাগের অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও মাদক নিয়ন্ত্রণ টিম। তার কাছ থেকে চুরি হওয়া ১টি স্বর্ণের চুড়ি, ১টি স্বর্ণের চেইন, ১টি স্বর্ণের আংটি ও নগদ ৫ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়েছে।

[৪] রোববার ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে গোয়েন্দা পুলিশের যুগ্ম কমিশনার মো. মাহবুব আলম বলেন, গত ২৩ জুলাই রামপুরার হাইস্কুল গলির একটি বাসা থেকে একটি স্বর্ণের চেইন, চুড়ি, আংটিসহ নগদ কিছু টাকা চুরি হয়। ঘটনার পর দিন গৃহকর্তার থানায় মামলা করেন। মামলার ছায়া তদন্ত শুরু করে গোয়েন্দা রমনা বিভাগ। বিভিন্ন তথ্য-উপাত্ত বিশ্লেষণ করে স্বল্প সময়ের মধ্যে কুমিল্লার লাকসাম থেকে অভিযুক্ত গৃহকর্মীকে গ্রেপ্তার করে।

[৫] তিনি আরও বলেন, একটি অসাধু চক্র ঢাকা শহরের বিভিন্ন বাসা বাড়িতে গৃহকর্মীর ছদ্মবেশে তাদের লোকদের নিয়োগ করে। পরে সুযোগ বুঝে তাদের নিয়োগ দেওয়া গৃহকর্মী ওই বাসার স্বর্ণলংকারসহ মূল্যবান জিনিসপত্র নিয়ে পালিয়ে যায়। এ চক্রের অন্যান্য সদস্যদের গ্রেপ্তার অভিযান চলছে।

[৬] যুগ্ম কমিশনার মাহবুব আলম বলেন, অনলাইনের মাধ্যমে যোগাযোগ করে গত ১৯ জুলাই ১০ হাজার টাকা বেতনে ভুক্তভোগীর বাসায় নূপুর গৃহকর্মী হিসেবে কাজে যোগ দেয়। ঈদের দুদিন পরই ২৩ জুলাই সন্ধ্যায় বাসা থেকে সাড়ে তিন ভরি স্বর্ণালঙ্কার ও কিছু নগদ টাকা নিয়ে পালিয়ে যায়।

[৭] ডিবি কর্মকর্তা বলেন, এই ধরনের চুরি ডাকাতির ঘটনায় আসামিদের গ্রেপ্তার ও মালামাল উদ্ধারে বেগ পেতে হয়। কারণ ডিএমপির তথ্য ভাÐারে বা ভাড়াটিয়া তথ্য ভাণ্ডারে এধরনের গৃহকর্মীদের তথ্য সংযুক্ত থাকে না।

[৮] তিনি বলেন, বাসা-বাড়িতে গৃহকর্মী বা দারোয়ান নিয়োগ দিলে নিকটস্থ থানা পুলিশকে জানান। ভাড়াটিয়া তথ্য ভাণ্ডারে তাদের ছবি, পরিচয়সহ বিস্তারিত তথ্য সংযুক্ত করুন। তাহলে যেকোনো অপরাধে তাদের দ্রুত আটক করা সম্ভব। গ্রেপ্তার নূপুর আরও দুটি চুরির ঘটনায় জড়িত ছিল বলে আমরা তথ্য পেয়েছি। এ ঘটনায় একজন মূলহোতা রয়েছে। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত