প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রথম ফাইনালে উঠে শ্বাসরুদ্ধকর টাইব্রেকারে খালি হাতেই ফিরলো ইংল্যান্ড

স্পোর্টস ডেস্ক : লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে পেনাল্টি শুট-আউটে ইংল্যান্ডকে ২-৩ গোলে হারিয়ে ইউরো কাপের শিরোপা জিতেছে ইতালি। অন্যদিকে, ১৯৬৬ বিশ্বকাপের পর প্রথম বড় কোনো টুর্নামেন্টের ফাইনালে উঠলেও শিরোপা অধরাই থেকে গেল ইংলিশদের।

‘ফুটবল ঘরে ফিরবে’ এই আশায় ওয়েম্বলিতে উপস্থিত ৬০ হাজার ইংল্যান্ড সমর্থকের চিৎকার আর গর্জনে শুরু থেকেই ইতালিয়ানদের ত্রাহি ত্রাহি অবস্থা। কিন্তু স্বাগতিক দর্শকদের শেষে কাঁদতে কাঁদতে বাড়ি ফিরতে হলো।

টাইব্রেকারে ইতালির প্রথমটি গোল। শট নেন ডোমেনিকো বেরারদি। ১-০।
ইংল্যান্ডের প্রথম শট নেন অধিনায়ক হ্যারি কেইন। গোল। ১-১।
ইতালির দ্বিতীয় শট নেন আন্দ্রে বেলোত্তি। ঠেকিয়ে দেন জর্ডান পিকফোর্ড। ১-১।
ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় শট, হ্যারি মাগুইরে। গোল।১-২।
ইতালির তৃতীয় শট নেন লিওনার্দো বনুচ্চি। গোল। ২-২।
ইংল্যান্ডের তৃতীয় শট নেন মার্কাস রাশফোর্ড। কিন্তু বলটি তিনি মেরে দেন বাম পাশের পোস্টে। গোল হলো না। ২-২।
ইতালির চতুর্থ শট নেন ফেডেরিকো বার্নার্ডেশি। গোল। ৩-২।
ইংল্যান্ডের চতুর্থ শট নেন জ্যাডন সানচো। ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষ ডোনারুমা। গোল হলো না। ৩-২।
ইতালির শেষ নন জর্জিনহো। কিন্তু তার শট ঠেকিয়ে দেন পিকফোর্ড। গোল হলো না। ৩-২।
ইংল্যান্ডের শেষ শট নেন বুকাইয়ো সাকা। তার শটও ঠেকিয়ে দেন ডোনারুমা। গোল হলো না। ৩-২ ব্যবধানে জিতে ইউরো চ্যাম্পিয়ন ইতালি।

ইংলিশ ফুটবলাররা একের পর এক মিস করেছেন। অন্যদিকে ইতালিও মিস করেছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত গোলরক্ষক জিয়ানলুইজি ডোনারুমার অসাধারণ নৈপূণ্যে জয় হলো ইতালির। ওয়েম্বলিতে ইংল্যান্ডকে কাঁদিয়ে ৫৩ বছর পর আবারও ইউরোর শিরোপা উঠলো আজ্জুরিদের হাতে।

সর্বাধিক পঠিত