প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দেশে গরিব ও গ্রামীণ পরিবারগুলোয় কিশোরীদের গর্ভধারণ ও মাতৃমৃত্যু হার বেড়েছে: স্বাস্থ্য অধিদপ্তর

শাহীন খন্দকার: [২] বিশ্ব জনসংখ্যা দিবস উদযাপন উপলক্ষ্যে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল বাশার খুরশীদ আলম রোববার এক ভার্চুয়াল অনুষ্ঠানে এতথ্য জানান। অনুষ্ঠানে যুক্ত ছিলেন স্বাস্থ্যসচিব লোকমান হোসেন মিয়া, স্বাস্থ্য ও শিক্ষাসচিব আলী নুরসহ স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাবৃন্দ। স্বাগত বক্তব্য রাখেন পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বেগম সাহান আরা বানু।

[৩] স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল বাশার খুরশীদ আলম বলেন, ‘জনসংখ্যার তুলনায় আমাদের দেশে জমির পরিমাণ অনেক কম। নতুন নতুন বাড়ি-ঘর তৈরি হচ্ছে। এমন পরিস্থিতি অব্যাহত থাকলে ভবিষ্যতে চাষবাদ করার জমি খুঁজে পাওয়া যাবে না। এমন পরিস্থিতি মোকাবেলায় এখন থেকে নিয়ন্ত্রিত পরিবার ও প্রজন্ম স্বাস্থ্য বিষয়ে জনগণকে সচেতন করতে হবে।’

[৪] তিনি বলেন, ‘করোনা পরিস্থিতির মধ্যে আমরা প্রজন্ম স্বাস্থ্য নিয়ে চিন্তিত। মহামারির মধ্যে যে সব মায়েরা গর্ভবর্তী হচ্ছেন, তাদের প্রসবের সংকট বা প্রসব পরবর্তী সংকট অনেক অনেক বেশি। আমার লক্ষ্য করছি যে করোনার মধ্যে মাতৃমৃত্যু হার বেড়েছে।’

[৫] তিনি মাতৃমৃত্যুর কারণ ব্যাখ্যা করতে গিয়ে বলেন, ‘করোনা ও একলামশিয়ার উপসর্গগুলো প্রায় একই রকম। আর একটি বিষয় হচ্ছে যদি আমরা পরিবার পরিকল্পনা সুরক্ষিত না করতে পারি এবং পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ না করতে পারি তাহলে এই মাতৃমৃত্যু হার কমানো সম্ভব না।’ সম্পাদনা: মেহেদী হাসান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত