প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সংসদ ভবন ও তার আশপাশের এলাকা উন্নয়ন কাজ ৬৫ ভাগ শেষ, বাস্তবায়নে গণপূর্ত অধিদফতর

সুজিৎ নন্দী: [২] পুরো বছর জুড়ে জাতীয় সংসদ ভবন ও সংসদ সদস্য ভবন (এমপি হোস্টেল) আরও আধুনিকায়নের কাজ শুরু হয়েছে। গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের ‘জাতীয় সংসদ ভবন, সংসদ সদস্য ভবনসহ আনুষঙ্গিক স্থাপনা নির্মাণ ও আধুনিকায়ন’ নেয়া ২৩৪ কোটি টাকার প্রকল্পটি এবছর ডিসেম্বরে শেষ হবে। বাস্তবায়ন করছে গণপূর্ত অধিদফতর।

[৩] ২৩৪ কোটি টাকার এ প্রকল্প বাস্তবায়নে সিভিল বিভাগ ৬৮ কোটি টাকা এবং ইলেট্রিক বিভাগ ১৬৬ কোটি টাকার কাজ করবে। পুরো কাজ তদারকির জন্য হুইপ ইকবালুর রহিমের নেতৃত্বে একটি কমিটি রয়েছে।

[৪] চলতি বছরের জুনে প্রকল্পের কাজ শেষ হবার কথা থাকলেও করোনার কারণে ৬মাস দেরি হচ্ছে। প্রকল্পের মধ্যে আছে সংসদ সদস্য ভবন ৬টির পুরো সংস্কার, বৈদ্যুতিক সরঞ্জাম সংস্কার, মণিপুরিপাড়ায় খেজুরবাগান সংলগ্ন এলাকায় ৯তলা বিশিষ্ট দুটি ভবন নির্মাণ, শক্তিশালী জেনারেটর নির্মাণসহ প্রায় এক ডজন প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজ চলছে।

[৫] গণপূর্ত অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলী মোহাম্মদ শামীম আখতার বলেন, প্রকল্পের কাজ দ্রুতগতিতে চলছে। সংসদ সদস্য ভবন ও পুরাতন এমপি হোস্টেল ক্যাম্পাসও দৃষ্টিনন্দন করে তোলা হবে। পরিবর্তন করা হবে সংসদের পুরো সাউন্ড সিস্টেম।

[৬] প্রকল্প পরিচালক ও ঢাকা সার্কেল-৩ এর তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী রোকন উদ্দিন বলেন, কাজ চলছে। প্রকল্পের আওতায় সৌন্দর্যময় পরিবেশ ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে সংসদ ভবনের পশ্চিম পাশের আবাসিক এলাকা ও আরব রিকালচার কম্পাউন্ড এলাকায় সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করা হবে।

[৭] নির্বাহী প্রকৌশলী মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন, ৯তলা ভবনের ৬তলা পর্যন্ত কাজ হয়েছে। তবে ডিসেম্বরের মধ্যে কাজ শেষ হবে। নির্ধারিত সময়ে কাজ শেষ করতে আমরা কাজ করতে পারবো।

[৮] বৈদ্যুতিক বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী সমীরণ মিস্ত্রি জানান, বৈদ্যুতিক বিভাগের ৬৫ থেকে ৭০ ভাগ কাজ শেষ হয়েছে। কাজ পুরোদমে চলছে। পুরো কাজ তদারকির জন্য হুইপ ইকবালুর রহিমের নেতৃত্বে একটি কমিটি রয়েছে। কমিটির নির্দেশনা অনুযায়ী প্রকল্প বাস্তবায়ন হচ্ছে। কাজের মানের বিষয়েও আমাদের তীক্ষ্ন নজর আছে।

[৮] গণপূর্ত অধিদফতরের বৈদ্যুতিক বিভাগ জানায়, এমপি হোস্টেলের পার্লামেন্ট মেম্বারস ক্লাব এবং কমিউনিটি সেন্টারের আধুনিকায়ন ও সংসদ ভবনের বৈদ্যুতিক কাজের আধুনিকায়ন হবে। এ ছাড়া সংসদ ভবন এলাকায় খেজুরবাগানের সাবস্টেশন পরিবর্তন করা হবে। একই সঙ্গে সংসদ ভবনে নতুন ১০টির ও বেশি লিফট লাগানো হচ্ছে। সংসদের পুরো সাউন্ড সিস্টেম পরিবর্তন করে এটিকে আরও আধুনিকায়ন করা হচ্ছে।

[৯] সূত্র জানায়, জাতীয় সংসদ ভবন নির্মাণের পর থেকে দীর্ঘদিন বড় ধরনের কোনো সংস্কার কাজ না হওয়ায় ধীরে ধীরে এর জৌলুস হারাতে বসেছিল। এ প্রকল্প বাস্তবায়নে আবার নতুন চেহারায় ফিওে আসবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত