প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] প্রবৃদ্ধি বৃদ্ধিতে বেসরকারী খাতের সংস্কার করা প্রয়োজন বাংলাদেশের

লিহান লিমা: [২] নতুন এই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বাড়াতে বেসরকারী খাতকে শক্তিশালী ও আধুনিকায়ন করার দিকে গুরুত্ব দিতে হবে বাংলাদেশের। বিশ্বব্যাংক ও ইন্টারন্যাশনাল ফাইন্যান্স কর্পোরেশন (আইএফসি) এর যৌথভাবে প্রস্তুতকৃত ‘বাংলাদেশ কান্ট্রি প্রাইভেট সেক্টর ডায়াগনস্টিক’ (সিপিএসডি) প্রতিবেদনে বলা হয়, বেসরকারী খাতকে নতুন করে সংস্কারে কর্মসংস্থান বৃদ্ধির পাশাপাশ রপ্তানি-মুখী প্রবৃদ্ধি অর্জনের দিকে লক্ষ্য রাখা উচিত। ইস্টান আই বিজনেস

[৩] এই প্রতিবেদনে বলা হয়, সাম্প্রতিক দশকে বাংলাদেশ অনেক উন্নতি ও সাফল্য অর্জন করেছে। দেশটির এখন প্রয়োজন আগামী দশকের মধ্যে উচ্চ মধ্যম আয়ের দেশে রুপান্তর হওয়ার দিকে মনোনিবেশ করা।

[৪] আইএফসির এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের সহ-সভাপতি আরফোনসো গার্সিয়া মোরা বলেন, ‘ মহামারী কাটিয়ে ওঠার পর আয় ও প্রবৃদ্ধির জন্য নতুন উৎসের সন্ধান করাই হবে দেশগুলোর মূল অগ্রাধিকার।’ গার্সিয়া বলেন, ‘বাংলাদেশে মোট বিনিয়োগের ৭০ভাগই বেসরকারী খাতের, যা একটি শক্তিশালী আর্থিক খাত কর্তৃক সমর্থিত। বাংলাদেশে যাতে রপ্তানি, কর্মসংস্থান ও অর্থনৈতিক বিকাশ ঘটে সেজন্য মহামারী পরবর্তী আর্থিক পুনরুদ্ধারে এই খাতকেই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করতে হবে।’

[৫] সিপিএসডি’র প্রতিবেদনে বলা হয়, তৈরি পোশাক খাতের সাফল্য, শক্তিশালী রেমিট্যান্স প্রবাহ ও সরকারের বিচক্ষণ নীতি-কৌশল মহামারীতেও বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি অব্যাহত রাখতে অবদান রেখেছে। দেশের ৪০ লাখের বেশি কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে এককভাবে ভূমিকা রেখেছে তৈরি পোশাক খাত।

[৬] প্রতিবেদনে বলা হয়, বেসরকারী খাতের সংস্কারের মূল এজেন্ডার মধ্যে বিনিয়োগকারীদের জন্য অনুকূল বাণিজ্য ও বিনিয়োগের পরিবেশ এবং আর্থিক খাতের সম্প্রসারণগুলো অন্তর্ভূক্ত করতে হবে। পরিবহন ও সরবরাহ খাত, শক্তি ও জ্বালানি, অর্থনৈতিক সেবা খাত, উৎপাদন, কৃষি, স্বাস্থ্যসেবা ও ঔষুধ খাতে বেসরকারী বিনিয়োগের শক্তিশালী সম্ভাবনা রয়েছে যা অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বাড়াতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখতে পারে।

[৭] প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারী শিল্প খাত ও বিনিয়োগ বিষয়ক পরামর্শক সালমান এফ রহমান বলেন, ‘গত বছর মহামারীর প্রভাব সত্ত্বেও বাংলাদেশের জিডিপি প্রবৃদ্ধি ছিলো ইতিবাচক। এছাড়া দক্ষিণ এশিয়ার একমাত্র দেশ হিসেবে এখানে আমরা মন্দার সম্মুখীন হই নি।’ তিনি আরো বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি সমৃদ্ধশালী দেশে রুপান্তর করার জন্য সরকারের অষ্টম পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনার সিপিএসডির সুপারিশগুলোকে অগ্রাধিকার দেয়া হয়েছে।’

 

সর্বাধিক পঠিত