প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বাংলাদেশ ক্রিকেটে হানা দিয়েছে ইনজুরি, শঙ্কায় জিম্বাবুয়ে সফর

নিজস্ব প্রতিবেদক : [২] সামনেই বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের ব্যস্ত সূচি। জিম্বাবুয়ে সফরের পর বাংলাদেশ সফরে আসবে অস্ট্রেলিয়া। এর মধ্যেই ইনজুরিতে জর্জরিত ক্রিকেট দল। তামিম ইকবালসহ জাতীয় দলের চারজন ভুগছেন চোটে। চলমান ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ থেকে তারা সবাই ছিটকে গেছেন চোটের কারণে। এ ছাড়া জাতীয় দলে আসা যাওয়ার মধ্যে থাকা আরও দুই পেসার ভুগছেন ইনজুরিতে।

[৩]প্রাইম ব্যাংক ক্রিকেট ক্লাবে খেলা তামিম ইকবাল ভুগছেন হাঁটুর ইনজুরিতে। আবাহনী লিমিটেডের লিটন দাস নামতেই পারেননি কবজির ইনজুরির জন্য। মোহামেডান স্পোর্টিংয়ের তাসকিন আহমেদের বাম হাতে ধরা পড়েছে চিড়। প্রাইম ব্যাংকের মোস্তাফিজুর রহমানের কোমরে ব্যথা।

[৪]জাতীয় দলের এই চার গুরুত্বপূর্ণ সদস্যের চোট নিয়ে গণমাধ্যমে কথা বলেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান চিকিৎসক দেবাশীষ চৌধুরী।

[৫]তবে জিম্বাবুয়ে সফরে তাদের নিয়ে কোনো আশংকা দেখছেন না দেবাশীষ চৌধুরী। হাতে যথেষ্ট সময় থাকায় সেরে উঠবেন বলে জানিয়েছেন এই চিকিৎসক।

[৬]তিনি বলেন, ইনজুরিগুলো প্রত্যেকটা সুস্থতার জন্য আমাদের হাতে ২-৩ সপ্তাহ সময় আছে। আমি মনে করি ২-৩ সপ্তাহ আমাদের জন্য যথেষ্ট সময়। এজন্য এই চারজনের কারও অংশগ্রহণের ব্যাপারে আশঙ্কা দেখছি না।

[৭]তামিমের ইনজুরি নিয়ে তিনি জানান, তামিম গত কয়দিন ধরে ওর হাঁটুতে ব্যথার কথা বলছিল। সমস্যার ব্যাপারে আমাদের সাথে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ রাখছিল। তিন দিন আগে ব্যথার তীব্রতা বেড়ে যাওয়ায় আমরা সবাই মিলে মনস্থির করেছি- ভবিষ্যতে পারফরম্যান্সের স্বার্থে এই ইনজুরির এখনই পরিচর্যা দরকার। সেই মোতাবেক ও এখনই খেলা থেকে বেড়িয়ে আসে। ও সার্বক্ষণিক ফিজিওদের তত্ত্বাবধানে আছে, বিশ্রামে আছে।

[৮]তাসকিনে দ্রুত বোলিংয়ে ফিরবে জানিয়ে দেবাশীষ চৌধুরী বলেন, তাসকিনের প্রথম ও দ্বিতীয় আঙুলের মাঝখানে ছিঁড়ে যায়। এটা ওর আগেই ছিল, নতুন করে আবার হয়েছে। কসমেটিক সার্জন দ্বারা যথাযথভাবে তার সার্জারি করা হয়েছে। যেহেতু নন-বোলিং আর্ম, ওর বোলিংয়ে সমস্যা হওয়ার কোনো কারণ দেখছি না। ২-১ দিন বিশ্রাম নেওয়ার পর ওর বোলিং আবার নতুন করে শুরু করতে পারবে।

[৯]লিটন দাসের কথা জানাতে গিয়ে এই চিকিৎসক বলেন, লিটন গত দুই সপ্তাহের বেশি সময় ধরে রিস্ট স্ট্রেইনের (কবজির ব্যথা) সমস্যায় ভুগছেন। গতকাল পর্যন্ত ক্লাবের ফিজিওর যে রিপোর্ট পেয়েছি সেখানে দেখা যাচ্ছে ওর দুই হাতের শক্তি এবং দুই হাতের অন্যান্য ফিজিওথেরাপি স্বাভাবিক মাত্রায় চলে এসেছে। এখন দরকার ম্যাচ প্র্যাকটিস। যখনই লিটন প্র্যাকটিস করবে বা ম্যাচ খেলবে তখন বোঝা যাবে ইনজুরির বর্তমান অবস্থা।

[১০]অন্যদিকে মোস্তাফিজ নিয়ে বলেন, মোস্তাফিজ কোমরের ব্যথার কথা জানিয়েছিল আমাদের। যেহেতু আমাদের হাতে সময় কম, খুব তাড়াতাড়ি ওর লো ব্যাকে স্ক্যান করিয়েছি। স্ক্যানে খারাপ কোনো ইনজুরির লক্ষণ দেখিনি। ২-১ দিনের পরিচর্যায় ব্যথাটা অনেক কমে গেছে।

[১১]প্রায় দুই মাস ধরে মাঠের বাইরে থাকা আল আমিন খেলার পর্যায়ে যেতে আরও দেরি হবে বলে জানিয়েছেন বিসিবির এই চিকিৎসক। আর ব্যাক ইনজুরিতে ভোগা হাসান মাহমুদের পরিচর্যা চলছে। তার সমস্যা ৭০-৮০ শতাংশ সমাধান হয়েছে বলে জানান দেবাশীষ চৌধুরী।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত