প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি বাস্তবায়নে প্রাতিষ্ঠানিক কার্যক্রমে গতিশীলতা ও দক্ষতা বৃদ্ধিতে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে: ইউজিসি

সমীরণ রায়: [২] শনিবার ইউজিসি আয়োজিত বার্ষিক কর্মসম্পাদন চুক্তি (এপিএ) বিষয়ক দিনব্যাপী প্রশিক্ষণের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সভাপ্রধানের বক্তব্যে ইউজিসি সদস্য ও এপিএ টিমের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের এ কথা বলেন। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য দেন ইউজিসি সচিব (অতিরিক্ত দায়িত্ব¡) ড. ফেরদৌস জামান। এপিএর লক্ষগুলো একক কোনো বিভাগের প্রচেষ্টায় অর্জন করা সম্ভব নয়। এর জন্য প্রয়োজন বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) সব বিভাগের সম্মিলিত প্রচেষ্টা।

[৩] অধ্যাপক ড. মো. আবু তাহের বলেন, ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত দেশের কাতারে শামিলের লক্ষ্য নিয়ে বর্তমান সরকার কাজ করছে। এ লক্ষ্য অর্জনের জন্য ইতোমধ্যে বেশকিছু দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়নের কাজ চলছে। যার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে ভিশন ২০২১, টেকসই উন্নয়ন লক্ষসমূহ, বদ্বীপ পরিকল্পনা, পঞ্চবার্ষিকী পরিকল্পনা ইত্যাদি। এসব পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য এরই মধ্যে প্রশাসনিক ক্ষেত্রে সংস্কারমূলক পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে। সেবা দান সহজ ও সাশ্রয়ী করতে বিভিন্ন সংস্কারমূলক কাজ অব্যাহত রয়েছে।

[৪] তিনি আরও বলেন, সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় ইউজিসির কাজের পরিধি বর্তমানে আগের যেকোনো সময়ের চেয়ে অনেক বেড়েছে। এ বিশাল কর্মকাণ্ড যথাযথভাবে বাস্তবায়নের জন্য প্রয়োজন সংশ্লিষ্ট সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টা ও অঙ্গীকার।

[৫] ড. ফেরদৗস জামান বলেন, ২০০৯ সালে সরকার গঠনের পর থেকেই সরকারি সেবা সাধারণ মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে আইসিটি অবকাঠামো গড়ে তোলাসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ ও বাস্তবায়নের কাজ চলছে। প্রশাসনিক কাজে স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা ও গতিশীলতা আনতে বিভিন্ন সংস্কারমূলক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। সেগুলো বাস্তবায়নের কাজ অব্যাহত আছে। এপিএ প্রবর্তন ও বাস্তবায়ন এই সংস্কার কার্যক্রমেরই অংশ।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত