প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ফিলিস্তিনিরা বলছেন, নেতানিয়াহু না থাকলেও তাদের প্রতি ইসরায়েলি নীতিতে পরিবর্তণ আসবে সে সম্ভাবনা নেই

আসিফুজ্জামান পৃথিল: [২] হামাস বলছে, ডান, বাম, মধ্য সব ইসরায়েল সরকারই ফিলিস্তিন ইস্যুতে বৈরি হয়ে যায়

[৩] ফিলিস্তিনিরা বলছেন, বেনইয়ামিন নেতানিয়াহুর জায়গায় অন্য যে বা যিনি ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী হবেন, তিনিও ঠিক তার পূর্বসূরির মতো একই ডানপন্থী এজেন্ডা বাস্তবায়ন করবেন। ইসরায়েলে নতুন জোট সরকার গঠনে বিরোধী দলগুলো একমত হয়েছে। রয়টার্স

[৪] জোটের চুক্তি অনুযায়ী, ইসরায়েলের কট্টর ডানপন্থী দল ইয়ামিনা পার্টির প্রধান নাফতালি বেনেট প্রথম দুই বছর প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করবেন। বাকি দুই বছরের জন্য প্রধানমন্ত্রী হবেন লাপিড। নতুন এই সরকারের শপথ নেওয়ার আগে সরকার গঠনে সংখ্যাগরিষ্ঠতা যাচাইয়ে দেশটির পার্লামেন্টে ভোটাভুটি হবে। জোট যদি ১২০ আসনের পার্লামেন্টে সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণে ব্যর্থ হয়, তাহলে নতুন করে নির্বাচন হবে। বিবিসি

[৫] ক্ষমতায় টিকে থাকতে ফিলিস্তিনিদের ওপর হামলা ও আগ্রাসী আগ্রাসন চালানোর পন্থা বেছে নেওয়ার অভিযোগ রয়েছে ডানপন্থী নেতানিয়াহুর বিরুদ্ধে। ইসরায়েলের সম্ভাব্য প্রধানমন্ত্রী বেনেট একসময়ের প্রযুক্তি উদ্যোক্তা। ডানপন্থী, উগ্র ধর্মীয় ও জাতীয়তাবাদী বক্তব্যের মধ্য দিয়ে ইসরায়েলের রাজনীতিতে তার আবির্ভাব ঘটে। ৪৯ বছর বয়সী বেনেট তার রাজনীতির পুরো সময়ে ডানপন্থী ভোটারদের দলে ভেড়ানোর চেষ্টা করেছেন।এএফপি

[৬] বেনেট একসময় নেতানিয়াহুর দল ও সরকারে গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করেন। তিনি এখন ইয়েমিনা পার্টির নেতৃত্ব দিচ্ছেন। এই দল অধিকৃত পশ্চিম তীরের একাংশকে ইসরায়েলের অংশ হিসেবে ঘোষণা করার দাবি জানিয়ে আসছে। বেনেট ইসরায়েলের স্পেশাল ফোর্সের সাবেক কমান্ডো। অধিকৃত পশ্চিম তীরে ইহুদি বসতি স¤প্রসারণের মূল সংগঠনের প্রধান ছিলেন তিনি। বৃহস্পতিবারও তিনি সংঘাতের জন্য ফিলিস্তিনিদেরই বেশি দোষ দেন।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত