প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] ওসাকার সরে যাওয়ার সিদ্ধান্তকে সমর্থন সেরেনা, নাভ্রাতিলোভা ও বিলি জিন কিংয়ের

স্পোর্টস ডেস্ক : [২] সংবাদমাধ্যমের ওপর প্রতিবাদ করেই তার এই সিদ্ধান্ত। ওসাকার ওই পদক্ষেপে সোশ্যাল মিডিয়া উত্তাল। তবে সেরেনা উইলিয়ামস, বিলি জিন কিংয়ের মতো ক্রীড়াবিদরা তার পাশে দাঁড়িয়েছেন। এমনকি মার্টিনা নাভ্রাতিলোভা শুরুতে ওসাকার সিদ্ধান্তকে সমর্থন না করলেও শেষে এই জাপানি টেনিস তারকার পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। নাভ্রাতিলোভা প্রথমে একটি টুইট করেছিলেন। পরে সেই টুইট মুছে দিয়ে আবার একটি টুইট করেন। ডিলিট করে দেওয়া টুইটে নাভ্রাতিলোভা লিখেছিলেন, বাকি খেলোয়াড়দের কথা ভাবার জন্য তোমাকে সেলাম। নিজের ও বাকিদের সমস্যার সমাধান যাতে হয়, সেই চেষ্টাই ওসাকা করেছিল। কিন্তু ঘটনাচক্রে সেটা খারাপ দিকে মোড় নেয়।

[৩] আশা করবো ফরাসি ওপেন থেকে সরে যাওয়ার মতো কঠিন সিদ্ধান্ত ওসাকাকে ঘুরে দাঁড়াতে সাহায্য করবে। এরপর সেরেনা, বিলি জিন কিংয়ের মতো টেনিস খেলোয়াড় এই জাপানির সমর্থনে এগিয়ে এলে নাভ্রাতিলোভা ফের একটি টুইট করেন। সেখানে লেখেন, ওসাকার কথা ভেবে খুব খারাপ লাগছে। আশা করি ও এখন ভাল আছে। ক্রীড়াবিদ হিসেবে আমাদের এই শিক্ষাই দেওয়া হয় যে কীভাবে নিজের শরীর ও মনের যত্ন নেওয়া যায়।

[৪] আবেগ মাঝেমধ্যে আমাদের শরীর ও মনকে ছাপিয়ে যায়। সেটা নিয়ন্ত্রণ করা উচিত। সেই শিক্ষাও কিন্তু আমাদের দেওয়া হয়। এটা শুধু একটা সাংবাদিক সম্মেলনে অংশ নেওয়া কিংবা না নেওয়ার ব্যাপার নয়। আমরা সবাই তোমার পাশে আছি। ওসাকার সরে দাঁড়ানোয় সংবাদ মাধ্যমকে কটাক্ষ করে সেরেনা বলেন, ওসাকার জন্য খারাপ লাগছে। সব মানুষ তো সমান হয় না। আমি যেভাবে সংবাদমাধ্যমকে নিয়ে চলি, ওসাকা তেমনভাবে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে সম্পর্ক না রাখতেই পারে। আসলে আমার গায়ের চামড়া খুবই পুরু।

[৫] ওর গায়ের চামড়া পাতলা। বিলি জিন কিং আবার এই জাপানিকে সমর্থন জানিয়ে টুইটারে লিখেছেন, মেয়েটার সাহস আছে। সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ দেখানো মুখের কথা নয়। প্রতিযোগিতার প্রথম পর্বে জয় পেলেও সোমবার জাপানের এই মহিলা টেনিস তারকা টুইট করে লেখেন, আমি সরে গেলে এই প্রতিযোগিতা, অন্য টেনিস খেলোয়াড় এবং বাকি সকলের জন্য ভাল হবে। – আজকাল

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত