প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] সাতক্ষীরায় লকডাউন নয়, কড়া বাধা নিষেধ জারি, সীমান্তে কঠোর নজরদারি

আসাদুজ্জামান : [২] ‘এখনই লকডাউন নয়’ সবদিক বিবেচনা করে আগামী ৩ জুন তারিখের মিটিংয়ে সাতক্ষীরায় লকডাউন হবে কি হবে না সে সম্পর্কে জেলা পর্যায়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল।

[৩] তিনি আরো জানান, করোনা সংক্রমন রোধে সাতক্ষীরা জেলায় বেশকিছু বাধা নিষেধ আরোপ করা হয়েছে। আজ সোমবার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে তার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত করোনা বিষয়ক বৈঠকে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে জানান জেলা প্রশাসক। এতে আরও উপস্থিত ছিলেন সাতক্ষীরা সদর আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা মীর মোস্তাক আহমেদ রবি, সাতক্ষীরা পুলিশ সুপার মোস্তাফিজুর রহমান, সিভিল সার্জন ডা. হুসাইন শাফায়াত, বিজিবি ৩৩ ব্যাটালিয়নের উপপরিচালক সহ কর্মকর্তারা।

[৪] সবার সিদ্ধান্তের কথা জানাতে গিয়ে জেলা প্রশাসক এসএম মোস্তফা কামাল বলেন, সাতক্ষীরা সীমান্তের চোরাপথ দিয়ে অবৈধ লোকজনের প্রবেশ সম্পূর্ন নিষিদ্ধ করা হয়েছে। এজন্য সাতক্ষীরার সীমান্তবর্তী উপজেলা সাতক্ষীরা সদর, কলারোয়া, কালিগঞ্জ, দেবহাটা এবং শ্যামনগরের কৈখালি ইউনিয়ন সংলগ্ন সীমান্ত পাহারায় স্থানীয়ভাবে প্রতিরক্ষা কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই কমিটিতে থাকছেন উপজেলা চেয়ারম্যান, ইউএনও, বিজিবি প্রতিনিধি এবং স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যানবৃন্দ। প্রতিরক্ষা কমিটি সীমান্তের চোরাচালানী, মানুষ পাচারকারী এবং অবৈধ যাতায়াতকারীদের চিহ্নিত করবে। একইসাথে তাদের বাড়িঘর এবং চলাফেরার ওপর কড়া নজরদারি রাখা হবে।

[৫] এ প্রসঙ্গে সাতক্ষীরা বিজিবি ৩৩ ব্যাটালিয়ন অধিনায়ক লে. কর্নেল আল মাহমুদ বলেন, বিজিবি সদস্যরা কয়েক সপ্তাহ যাবত সাতক্ষীরা সীমান্ত দিয়ে লাগাতার টহল চালিয়ে যাচ্ছেন। অবৈধ লোকজনের যাতায়াত রোধে এই সপ্তাহ পালিত হচ্ছে। তিনি বলেন, প্রথমদিকে কয়েকজন লোককে গ্রেফতার করা হলেও বর্তমান সময়ে অবৈধ যাতায়াত দৃশ্যমান হচ্ছে না।

[৬] জেলা প্রশাসক বৈঠকে আরও বলেন, সাতক্ষীরা জেলা করোনা রেড এলার্টের আওতায় রয়েছে। এছাড়া সীমান্ত গলিয়ে লোকজনের অবৈধ পারাপার রোধ করতে বিজিবি মাঠে রয়েছে। তিনি জানান, ভোমরা বন্দর দিয়ে প্রতিদিন আসা ৩০০ পন্যবাহী গাড়ির ৫ শতাধিক চালক ও হেলপার যাতে প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াতে না পারে সে ব্যাপারেও বাধানিষেধ জারি করা হয়েছে।

[৭] এদিকে করোনা সংক্রমণ রোধে প্রত্যেককে মাস্ক ব্যবহার করে স্বাস্থ্যবিধি মানার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এই নির্দেশ লঙ্ঘন করলে ভ্রাম্যমান আদালত তাকে ১ হাজার টাকা জরিমানা করতে পারবে।

[৮] বৈঠক সূত্র আরও জানিয়েছে, বর্তমান করোনা সংক্রমনের হার কতটা তা নিশ্চিত করে আগামী ৩ জুন তারিখে সাতক্ষীরা জেলায় লকডাউনের সম্ভাবনা রয়েছে। উল্লেখ্য যে, সাতক্ষীরায় আজ দুপুর পর্যন্ত ১৩৫ জন করোনা রোগী রয়েছেন। তাদের মধ্যে ৫৫ জনের করোনা পজেটিভ পাওয়া গেছে। অপরদিকে সাতক্ষীরা মেডিকেল কলেজে করোনা রোগীর ধারণ ক্ষমতা না থাকায় সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে বেশ কয়েকজন রোগীকে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত