প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] লকডাউন উপেক্ষা করে রাজশাহী হয়ে ঢাকায় যাচ্ছে চাঁপাইনবাবগঞ্জের শত শত শ্রমজীবী মানুষ

মঈন উদ্দীন: [২] সংক্রমণ যাতে অন্য জেলায় না ছড়ায়, সে বিবেচনায় গত মঙ্গলবার (২৫ মে) ভোর ৬টা থেকে ৩১ মে মধ্যরাত পর্যন্ত চাঁপাইনবাবগঞ্জে শুরু হয়েছে সাত দিনের বিশেষ লকডাউন।

[৩] এদিকে, লকডাউন উপেক্ষা করে বিভিন্ন কৌশলে পুলিশের চেক পোস্ট পার হয়ে রাজশাহী হয়ে ঢাকামুখী হচ্ছেন চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে আসা ‘শত শত’ শ্রমজীবী মানুষ। গত মঙ্গলবার ও গতকাল বুধবার রাজশাহীর বাস টার্মিনালে জেলাটির এইসব শ্রমিকদের উপস্থিতি ছিল রাজশাহী বাস ঢাকা টার্মিনালে চোখে পড়ার মতো। এতে করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে সংক্রমণ অন্য জেলাতেও ছড়ানোর শঙ্কা তৈরি হচ্ছে।

[৪] সংক্রমণ যাতে অন্য জেলায় না ছড়ায়, সে বিবেচনায় গত মঙ্গলবার (২৫ মে) ভোর ৬টা থেকে ৩১ মে মধ্যরাত পর্যন্ত চাঁপাইনবাবগঞ্জে চলছে সাত দিনের বিশেষ লকডাউন। তা না মেনে অটোরিকশায় করে জেলাটি থেকে শ্রমজীবীরা রাজশাহীতে আসছেন। পথে পুলিশের চেকপোস্ট এলাকা পার হচ্ছেন পায়ে হেঁটে।

[৫] এরপর প্রবেশ করছেন রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলায়। এছাড়া দেখা যায় অনেকে মাইক্রো গাড়ি রিজার্ভ করে ঢাকা শহরের উদ্দেশ্যে রওনা দিচ্ছে।

[৬] তাঁদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, কাজে যোগ দিতে ঢাকায় যাচ্ছেন। পদ্মা নদী হয়ে নৌকায় এসে গোদাগাড়ীর সুলতানগঞ্জে নামেন তাঁরা। পরে সেখান থেকে রাজশাহী বাস টার্মিনালে আসেন। সেখানে এসে মুখে মাস্ক ছাড়াই ঘুরে ফিরে ঢাকায় ও রাজশাহীর বিভিন্ন এলাকাতেও ছড়িয়ে পরছেন তারা। গতকালও নগরীর শিরোইল বাস টার্মিনাল থেকে ঢাকাগামী একটি বাসের আট যাত্রীর সবাই ছিলেন চাঁপাইনবাবগঞ্জের। এ সময় টার্মিনালের অন্যান্য বাস কাউন্টারেও চাঁপাইনবাবগঞ্জ থেকে আসা যাত্রীদের উপস্থিতি দেখা যায়।

[৭] এদিকে, চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার দুর্লভপুর ইউনিয়নের ইউনিয়ন পরিষদের সামনে থেকে একটি ট্রাকে করে ৪০ থেকে ৫০ যাত্রী নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে গত বুধবার রাত ১০টার ছেড়ে যাচ্ছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাকিব আল রাব্বি দ্রুত ঘটনা স্থলে গিয়ে ট্রাকটিকে আটক করে। আটকের সময় বেশ কিছু যাত্রী পালিয়ে গেলেও ট্রাক সহ ২১ জন যাত্রী কে আটক করা হয়।

[৮] রাজশাহী মেডিকেল কলেজের ভাইরোলজি বিভাগের প্রধান সাবেরা গুলনাহার জানিয়েছেন, দেশে বর্তমানে করোনা সংক্রমণের হার সবচেয়ে বেশি চাঁপাইনবাবগঞ্জে। গত মঙ্গলবার নমুনা পরীক্ষায় প্রায় ৬২ শতাংশ ব্যক্তির দেহে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়। রাজশাহীতে এ সংক্রমণের হার ২৮ শতাংশ।

[৯] চাঁপাইনবাবগঞ্জ সিভিল সার্জন ডা. জাহিদ নজরুল চৌধুরী গতকাল বুধবার জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় ২১২টি স্যাম্পল রেপিট এন্টিজেন টেস্ট করে ১৩১ জনের পজেটিভ পাওয়া গেছে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় বর্তমানে করোনা রোগী চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৩৯৩ জন। জেলায় এ পর্যন্ত মোট ১৫০৩ জনের দেহে ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। আর এক হাজার ৮৩ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন এবং মারা গেছে ২৮ জন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত