শিরোনাম

প্রকাশিত : ২০ মে, ২০২১, ০৩:৪০ রাত
আপডেট : ২০ মে, ২০২১, ০৩:৪০ রাত

প্রতিবেদক : নিউজ ডেস্ক

বঙ্গোপসাগর ও সুন্দরবনে মাছ ধরায় ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞা

ডেস্ক রিপোর্ট : মাছের প্রজনন ও উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে বঙ্গোপসাগর ও সুন্দরবনে ইলিশসহ সব প্রজাতির মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। বুধবার দিবাগত রাত থেকে ৩০ জুলাই পর্যন্ত ৬৫ দিনের জন্য এ নিষেধাজ্ঞা বহাল থাকবে।

তবে এবারই প্রথম ৬৫ দিনের জন্য সুন্দরবনে ইলিশসহ সব প্রজাতির মাছ ধরায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।

এদিকে, উপকূলীয় মৎস্য আড়তে দেখা গেছে সমুদ্রগামী জেলেরা জাল, ট্রলার ও ফিশিং বোট নিয়ে সাগর ও সুন্দরবন থেকে মৎস্য বন্দরগুলোতে ফিরে এসেছে।
বাগেরহাটের শরণখোলার মৎস্য ব্যবসায়ী ও ফিশিং ট্রলার মালিক শহিদুল ইসলাম বলেন, আমরা সাগরে ও সুন্দরবনে মাছ ধরি। কিন্তু ৬৫ দিনের জন্য মাছ ধরা বন্ধ থাকায় আমরা বেকার হয়ে পড়ছি। ধারদেনা করে দিন কাটাতে হবে।

জেলেদের দাবি, সরকারের পক্ষ থেকে জেলে পুনর্বাসনের বরাদ্দ আরো বাড়িয়ে দিলে কিছুটা হলেও সংকট দূর হতো। জেলেরা বলছেন, তারা শুধু সাগরে মাছ ধরে থাকেন। এ মাছের উপরই তাদের জীবন-জীবিকা। মাছ ধরা বন্ধ থাকলে তাদের আয় বন্ধ হয়ে যায়। তাই ৬৫ দিনের নিষেধাজ্ঞাকালে বরাদ্দ যেন বাড়িয়ে দেওয়া হয়।

বাগেরহাট জেলা মৎস্য বিভাগ বলছে, এবার নিষেধাজ্ঞার সময়ে সাগর ও বন বিভাগের নিবন্ধিত সব জেলেদের জন্য প্রতি মাসে ৪০ কেজি করে চাল দেওয়া হবে। দ্রুতই জেলেদের এসব চাল বিতরণ শুরু হবে। বাংলাদেশ প্রতিদিন

  • সর্বশেষ