প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] দ্রুতগ‌তি‌তে এ‌গি‌য়ে যা‌চ্ছে চৌগাছা পৌরসভায় পা‌নি শোধনাগর প্রক‌ল্পের কাজ

র‌হিদুল খান : [২] যশোরের চৌগাছা পৌরবাসীর দীর্ঘদিনের আকাঙ্খা ছিল পৌর নাগরিক হিসাবে বিশুদ্ধ পানি পাওয়ার। সেই স্বপ্ন এখন পূরণের পথে। সাপ্লাই পানি সরবরাহের জন্য নির্মিত হচ্ছে বিশাল পানির ট্যাংক ও পানি শোধনাগার। শুরু হয়েছে মেইন সড়কের পাশ দিয়ে পানির পাইপ লাইন বসানোর কাজ। পৌর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, এ বছরের শেষ অথবা আগামী বছরের প্রথম দিকে পৌরবাসী বিশুদ্ধ পানি ব্যবস্থাপনার সুযোগ পাবেন।

[৩] বর্তমান সরকার দেশের ১৯ জেলার ৩০টি পৌরসভায় পানি ও স্যানিটেশন সুবিধার লক্ষ্যে ১ হাজার ৭শ ৫১ কোটি ৫০ লাখ টাকার প্রকল্প হাতে নেয়। ৩০টি পৌরসভার মধ্যে ১টি হচ্ছে যশোরের চৌগাছা পৌরসভা। গত বছরের ৫ অক্টোবর এ প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের জনস্বাস্থ্য প্রকৌশলী বিভাগের পানি সরবরাহ ব্যবস্থাপনা প্রকল্পের পরিচালক মীর আব্দুস শাহিদ।

[৪] উদ্বোধনের পর হতেই পৌরসভায় চলছে বিশাল উন্নয়ন কর্মযজ্ঞ। পৌরসভা চত্বরে নির্মিত হচ্ছে দ্বিতল ভবন। এছাড়া পৌরসভা চত্বরে স্থাপন করা হয়েছে প্রায় সাড়ে ৭শ ফুট গভীর একটি গভীর নলকুপ ।

[৫] উপজেলা পরিষদের অভ্যন্তরে এক‌টি ও পাঁচ নং ওয়া‌র্ডে পানি শোধনাগারের পাশে অনুরূপ আরও দু’টি গভীর নলকুপ স্থাপন করা হয়েছে। ইতোমধ্যে উপজেলা ও পৌরসভার মধ্যে স্থাপিত গভীর নলকুপ হতে পাইপ লাইন স্থাপনের কাজ শুরু হয়েছে। এই নলকুুপ হতে পানি উপজেলার বিশ্বাসপাড়ার মূল শোধনাগারে পৌঁছানোর জন্যই পাইপ লাইনের কাজ অব্যাহত রয়েছে।

[৬] বিশ্বাসপাড়া মহল্লার নিচে রাইসার বিলের পা‌ড়ে মূল শোধনাগারের কাজ বেশ দ্রুত গতিতে এগিয়ে চলেছে। প্রায় অর্ধশত শ্রমিক নিরলসভাবে এ কাজ চালিয়ে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে সেখানে বিশাল পানির ট্যাংকের কাজ বেশ এগিয়েছে। অনুরূপভাবে এগিয়ে চলেছে পানি শোধনাগারের কাজও। বিশাল এ প্রকল্পের কাজ দেখতে উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রতিদিনই মানুষ ভিড় জমাচ্ছেন বলে জানান কর্মরত শ্রমিকরা।

[৭] পৌরসভার সহকারী প্রকৌশলী মজিবর রহমান জানান, প্রকল্পের কাজ বেশ দ্রুতগতিতে এগিয়ে চলেছে। ইতোমধ্যে অনেক কাজই দৃশ্যমান হয়েছে। এ কাজ শেষ হলে পৌরবাসীর বহুদিনের স্বপ্ন পূরণ হবে বলে আমি মনে করছি।

[৮] ইতিমধ্যে সাপ্লাই পানি সরবরাহের কাজ ৫০ ভাগ এগিয়ে গেছে জানিয়ে পৌর মেয়র নূর উদ্দিন আল মামুন হিমেল বলেন, আধুনিক পৌরসভা গঠনের লক্ষ্যে আমি কাজ করে যাচ্ছি। বিগত ৫ বছরে পৌর এলাকার যথেষ্ট উন্নয়ন হয়েছে। সেই ধারাবাহিকতায় গত নির্বাচনেও পৌরবাসী আমার উপর আস্থা রেখেছেন। আমি পৌরবাসীর সেই আস্থার প্রতিদান দিতে চাই।

[৯] তিনি আরও বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্থানীয় সরকার শক্তিশালীকরণে বহুবিধ পরিকল্পনা হাতে নিয়েছেন। তারই আলোকে পৌরসভার নানামুখী উন্নয়ন কর্মকাণ্ড শুরু হয়েছে। সরকারের সহযোগিতায় আমরা নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছি। সামনে আরও নানা উন্নয়ন কাজ হবে। সম্পাদনা: জেরিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত