প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পূর্ব লন্ডনে মেয়র পদ্ধতির পক্ষে জনরায়, নেপথ্যে লুৎফুর রহমান

সাইদুল ইসলাম, লন্ডন থেকেঃ  লন্ডনে বাংলাদেশী অধ্যুসিত বারা টাওয়ার হ্যামলেটসের স্থানীয় সরকারে মেয়র পদ্ধতি থাকবে কি থাকবে না এ নিয়ে অনুষ্ঠিত গনভোটে সরা‌সরি নির্বাচনের মাধ্যমে মেয়র নির্বাচ‌নের প‌ক্ষে ভূমিধ্বস জয় এ‌সে‌ছে। এই জয়ের নৈপথ্যের নায়ক বাংলা‌দে‌শে জন্ম নেয়া বৃটিশ রাজনী‌তি‌বিদ লুৎফুর রহমান। গত ৬ মে বৃহস্পতিবার অনুষ্ঠিত ভোটে সরাসরি মেয়র নির্বাচনের পক্ষে ভোট পড়েছে ৬৩০২৯ ভোট আর বিপক্ষে পড়েছে মাত্র ১৭৯৫১ ভোট।

গতকাল শ‌নিবার স্থানীয় সময় বি‌কে‌লে প্রকা‌শিত ফলাফ‌ল ছিল অ‌নেকটা চমকের মত।

কারন, এ বারায় বিরোধীদল লেবার পার্টি, ক্ষমতাশীন কনজার‌ভে‌টিভ পার্টি, লিব‌ডেম সহ ব্রিটে‌নের সকল মুলধারার রাজনৈতিক  দল সরাস‌রি নির্বা‌চিত মেয়‌রের বদ‌লে ভোট ছাড়া কাউ‌ন্সিল লিডার মনোনী‌তের প‌ক্ষে ছিল। স্থানীয় বাংলা‌দেশী বং‌শোব্দুত এম‌পি রোশনারা আলী,বর্তমান মেয়র জন বিগস সহ বারার মুলধারার শীর্ষ রাজনী‌তি‌বিদরা সরাস‌রি ভো‌টে মেয়‌র নির্বাচ‌নের বিপ‌ক্ষে প্রচারনায় না‌মেন। অন্যদি‌কে এ ইস্যুতে নির্বাহী মেয়র পদ্ধতি বহাল রাখার প‌ক্ষে মা‌ঠে না‌মেন টাওয়ার হ্যামলেটসের দুবা‌রের সা‌বেক মেয়র লুৎফুর রহমান। সা‌বেক ডেপু‌টি মেয়র অ‌হিদ আহমদ সহ নি‌জের দল এস্পায়ার পার্টির অনুসারী‌দের নি‌য়ে দীর্ঘ ক‌য়েক বছর পর ফের রাজনীতির মা‌ঠে সক্রিয় হোন লুৎফুর।

১৯৬৫ সালের ১লা এপ্রিল লন্ডন শহরের টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিল সৃষ্টি হলেও এ বারায় মেয়র পদে জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে প্রথম নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয় ২০১০ সালের ২১ অক্টোবর। তার আগে কাউন্সিলরদের ভোটে মেয়ররা নির্বাচিত হলেও মেয়রের কোনো নির্বাহী ক্ষমতা ছিল না। ২০১০ সাল থেকে গত ১০ বছরে টাওয়ার হ্যামলেটস কাউন্সিলে পরপর চারবার মেয়র পদে সরাসরি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও আগামী নির্বাচনে মেয়র পদে জনগণের সরাসরি ভোট দেওয়ার অধিকার থাকবে কি না, তা নিয়ে গত ৬মে অনুষ্ঠিত হয় গণভোট। ব্রিটেনের মূলধারার প্রধান রাজনৈতিক দলগুলোর মধ্যে ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টি ও বিরোধী দল লেবার পার্টিও চায়নি টাওয়ার হ্যামলেটসে জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে মেয়র নির্বাচিত হোক। তবে টাওয়ার হ্যামলেটসের বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত সাবেক মেয়র লুৎফর রহমান ও তাঁর দল এস্পায়ার পার্টি মেয়র পদে জনগণের সরাসরি ভোটের পক্ষে অবস্থান নিয়েছিল। ৬ মে অনুষ্ঠিত গনভোটের ফলাফল শ‌নিবার ( ৮ মে) স্থানীয় সময়  বিকেলে  ঘোষিত হয়। নির্বাহী মেয়‌রের পদ্ব‌তি বহাল রাখার প‌ক্ষে ভোট দেন  ৬২,০২৯ জন ভোটার আর বিপ‌ক্ষে ভোট দেন মাত্র ১৭৯৫১ জন ভোটার।

শ‌নিবার বি‌কে‌লে ফলাফল ঘোষনার পর লুৎফুর রহমান আমাদের সময় ডটকমকে তাৎক্ষ‌নিক প্রতি‌ক্রিয়া জানা‌তে গি‌য়ে ব‌লেন,এ বিজয় গনত‌ন্ত্রের বিজয়। টাওয়ার হ‌্যাম‌লেট‌সের সাধারন মানু‌ষের বিজয়। তি‌নি সবার দোয়া ও সহ‌যোগীতা চান।

উ‌ল্লেখ,সিলেটে জন্ম নেওয়া ব্রিটিশ রাজনীতিক লুৎফুর রহমান ২০১০ সালে ৪৫ বছর বয়সে লন্ডনের বাঙালিপাড়া টাওয়ার হ্যামলেটসে তীব্র প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচনে সরাসরি ভোটে মেয়র নির্বাচিত হন তিনি। এর আগে দুই দফায় কাউ‌ন্সিল লিডার ছিলেন তিনি।

লুৎফুর কেবল যুক্তরাজ্য নয়, পুরো ইউরোপের কোনও শহরে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রথম নির্বাচিত মেয়র। ২০১৪ সা‌লে দ্বিতীয়দফায় মেয়র নির্বাচ‌নে দ্বিতীয়বার ৩৮ হাজার ভো‌টে বিজয়ী হন লুৎফুর রহমান। দ্বিতীয়দফা নির্বা‌চিত হবার পর এক বাংলা‌দেশী ব‌্যবসায়ী লুৎফুর রহমা‌নের বিরু‌দ্ধে অ‌নিয়মের অ‌ভি‌যোগ আ‌নেন।

সি‌ভিল আদাল‌তের রা‌য়ে পরবর্তীতে মেয়র পদ থে‌কে অপসা‌রিত হন লুৎফুর।প‌রে ২০১৮ সা‌লের সে‌প্টেম্ব‌র দীর্ঘ চার দফা তদ‌ন্তের পর লন্ডন মে‌ট্রোপ‌লিটন পু‌লিশ জানায়, এক দশ‌মিক সাত মি‌লিয়ন পাউন্ড খরচ ক‌রে তদন্ত ক‌রেও মেয়র লুৎফুর রহমা‌নের বিরুদ্ধে অ‌নিয়‌মের কোন প্রমান তারা পায়‌নি। সি‌টি অফ লন্ডন পু‌লিশ লুৎফু‌রের মেয়াদকা‌লের আ‌র্থিক বিষয় নি‌য়ে তদন্ত ক‌রে। তারাও কোন অ‌ভি‌যোগ পায়‌নি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত