প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শাকিব খান কি সত্যিকার অর্থেই চলচ্চিত্রশিল্পের জন্য বোঝা!

ইমরুল শাহেদ: মগবাজারের মুক্তিযোদ্ধা গলির মুখে যে কোনো পরিস্থিতিতেই সাংস্কৃতিক অঙ্গনের লোকজন প্রতিদিন সন্ধ্যায় সমবেত হন। সেখানে সাংস্কৃতিক নানা বিষয়, তারকাদের নানা খবর নিয়ে কথা হয়। তারকাদের দোষ-গুণ, পারিশ্রমিক, আচরণ, শুটিং ফাঁকি দিয়ে সম্মানী নিয়ে যাওয়া ইত্যাদি আরো অনেক বিষয়ে আলোচনা হয়।

এমনি এক আলোচনায় এক প্রদর্শক বললেন, ‘শাকিব খান হলেন চলচ্চিত্রশিল্পের জন্য একটা বোঝা।’ কিভাবে জানতে চাওয়া হলে তিনি বলেন, শাকিব খান একজন ব্যয়বহুল তারকা। তাকে নিয়ে ছবি বানালে দেড় থেকে দুই কোটি টাকা ব্যয় হয়ে যায়। সে বিনিয়োগ তুলে আনার জন্য বাজার কোথায়? সিনেমা হলের সংখ্যা কমে গেছে। যখন দেশে তের-চৌদ্দ শ’ সিনেমা হল ছিল, তখন হলে দেড়-দুই কোটি টাকা বিনিয়োগ কোনো ব্যাপার ছিল না। এসব কথা বলতে বলতে তিনি একটু থামলেন।

চায়ে চুমুক দিয়ে আবার বলতে শুরু করলেন, এদেশে শাকিব খানই এখন পর্যন্ত একজন তারকা, যার উপর নির্মাতারা আস্থা রাখতে পারেন এবং দর্শকের একটা আনুকূল্য আছে তার প্রতি। তিনি যদি নামমাত্র পারিশ্রমিকে দশ-বারোটি ছবি করে দিতেন এবং বিনিয়োগকারীরা লগ্নীর অর্থ ফেরত আনতে পারতেন তাহলে চলচ্চিত্রশিল্প দ্রুতই রমরমা হয়ে উঠতো। এই আত্মত্যাগ তিনি কখনো স্বীকার করবেন না। আজকে তার যা অর্থ সম্পদ দেখা যাচ্ছে, তার পুরোটাইতো তিনি এখান থেকে উপার্জন করেছেন। সেটা তিনি বিনাশ্রমে বা বিনা চেষ্টায় করেছেন বলে বলা হচ্ছে না। বলা হচ্ছে, চলচ্চিত্রশিল্প আমাদের সকলের জন্য উপার্জন স্থল। তাকে টিকিয়ে রাখাও আমাদের দায়িত্ব। আমরা যে, যে অবস্থানেই থাকি না কেন এদিকে আমাদের খেয়াল করতেই হবে। তিনি এমনি আরো অনেক কথাই বলেছেন।

উল্লেখ করার বিষয় হলো, শাকিব খান সম্প্রতি ঈদের জন্য দ্রুত গতিতে ওয়াজেদ আলী সুমনের ‘অন্তরাত্মা’ ছবির কাজ শেষ করেছেন। তার আরেকটি ছবির কাজ শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু কোভিড মহামারির কারণে ম্যুভমেন্ট নিষেধাজ্ঞা শুরু হওয়ায় ছবিটির কাজ স্থগিত হয়ে গেছে। এখন তিনি বাসায় অলস সময় কাটাচ্ছেন। সম্পাদনা : রাশিদ

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত