প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ড সিরিজ, বাংলাদেশের কাছে ক্ষমা চাইলো ম্যাচ রেফারি

স্পোর্টস ডেস্ক: বৃষ্টি বিঘ্নিত বাংলাদেশ-নিউজিল্যান্ডের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে বাংলাদেশ পায় তিনটা লক্ষ্য। নেপিয়ারে আগে ব্যাট করা নিউজিল্যান্ড ১৭.৫ ওভারে ৫ উইকেটে ১৭৩ রান, তখনই বৃষ্টি নামে।

এরপর খেলা বন্ধ হয়ে গেলে পুনরায় ব্যাট করার সুযোগ হয়নি নিউজিল্যান্ডের। বিরতির পর ব্যাট করতে নামলে জানা যায়, ১৬ ওভারে ১৪৮ রান করতে হবে জয়ের জন্য। এই লক্ষ্য নিয়ে খেলছিল লিটন দাস ও নাঈম শেখ।

তবে ইনিংসের ১.৩ ওভারের সময় আবারও খেলা বন্ধ, আলোচনা চলে নতুন লক্ষ্য নিয়ে। দেখা যায়, ম্যাচ রেফারির সঙ্গে আলাপ করতে রাসেল ডমিঙ্গোকে।

খানিক বাদে ঘোষণা আসে, জিততে হলে বাংলাদেশকে নিতে হবে ১৬ ওভারে ১৭০ রান! এখানেই শেষ নয়, মাঝে আবারও জানানো হয় ১৭১ রান করতে হবে বাংলাদেশকে। শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশ ২৮ রানে হেরে এক ম্যাচ আগেই ২-০ ব্যবধানে সিরিজ হারে কিউইদের কাছে।

এমন ঘটনায় ক্রিকেটার থেকে শুরু করে তোলপাড় গণমাধ্যমেও। তবে ম্যাচ শেষে ক্ষমা চেয়েছেন ম্যাচ রেফারি জেফ ক্রো।

টি-টোয়েন্টি প্রতিটি বল যখন গুরুত্বপূর্ণ, সেখানে এমন ঘটনায় ক্ষোভ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। এমন ভুলে কিউই অলরাউন্ডার জিমি নিশাম টুইট করেন, পাগলাটে ব্যাপার উল্লেখ করে।

‘কত রান তাড়া করতে হবে এটা না জেনেই খেলা শুরু, এটা কীভাবে সম্ভব! পাগলাটে ব্যাপার।’

ম্যাচে যে এর প্রভাব পড়েছে সেটা ম্যাচ শেষে জানিয়েছেন টাইগার অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

‘আমরা জানতাম না বৃষ্টি আইনে কত রানের লক্ষ্য পেয়েছি। হুট করে স্কোর বোর্ড পরিবর্তন হওয়ায় আমরা বিভ্রান্ত হয়েছি। তবে এটা খেলারই অংশ।’

টাইগারদের হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গো বলছেন, এমন ঘটনা তার জীবনে প্রথম দেখেছেন।

‘আমার জানা মতে এই ঘটনা এবারই প্রথম ঘটল আমার সামনে। এমন একটা ম্যাচ হলো, যেখানে ব্যাটসম্যানরা জানে না তারা কত রান তাড়া করতে নামছে। আমাদের কোনো ধারণা ছিল না, পাওয়া-প্লেতে কত রান নিতে হবে আমাদের। ব্যাপারটা মোটেই ভালো ছিল না।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত