প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হেফাজতের ডাকা হরতাল প্রতিহতের ঘোষনা দিয়েছে রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগ

হেফাজতের ডাকা হরতাল প্রতিহতের ঘোষনা দিয়েছে রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগ

হারুনুর রশিদ: বঙ্গবন্ধুর জন্মশত বার্ষিকী ও স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপনকালে সারাদেশে মৌলবাদী, জামায়াত-বিএনপি স্বাধীনতা বিরোধী অপশক্তি কর্তৃক ধ্বংসাত্বক তান্ডবলীলা ও নৈরাজ্য সৃষ্টির প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগ।

শনিবার (২৭মার্চ) বিকাল ৪টায় রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগের উদ্যোগে পৌর চত্ত্বর হতে একটি প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল বের হয়। পরে মিছিলটি শহরের কাঁঠালতলী, বনরুপা হয়ে প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে জেলা প্রশাসনের কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। পরে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে দলটি। এসময় শ্লোগানে, শ্লোগানে পুরো এলাকা মুখর করে তুলেন নেতাকর্মীরা।

এসময় জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আব্দুল জব্বার সুজন ও সাধারণ সম্পাদক প্রকাশ চাকমা বক্তব্য রাখেন।

দেশের বিভিন্ন স্থানে হেফাজতের ধ্বংসাত্মক কার্যকলাপের প্রতিবাদ জানিয়ে ছাত্রলীগ সম্পাদক প্রকাশ চাকমা বলেন, রাজাকারদের উত্তরসূরিরা দেশকে আবারও পাকিস্তান বানানোর ষড়যন্ত্র করছে।’ ‘আর কোনও ধ্বংসাত্মক কার্যকলাপ করার চেষ্টা করা হলে বাংলার সাধারণ মানুষকে সঙ্গে নিয়ে এর জবাব দেওয়া হবে।’

সমাবেশ ছাত্রলীগ সভাপতি আব্দুল জব্বার সুজন আগামীকাল (২৮ মার্চ) সোমবার হেফাজত ইসলামের ডাকা হরতাল প্রত্যাখান করে তা রাঙামাটিতে প্রতিহতের ঘোষণা দিয়েছে। একইসঙ্গে হরতাল চলাকালে স্বত:স্ফূর্তভাবে দোকানপাট ও ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখা এবং রাজপথে গাড়ি বের করার জন্য সবার প্রতি আহবান জানিয়েছেন জেলা ছাত্রলীগের সংগঠকরা।

সুজন বলেন, ‘হেফাজত ইসলাম আগামী সোমবার দেশব্যাপী যে হরতাল ডেকেছে আমরা রাঙামাটিবাসীর পক্ষ থেকে সেই হরতাল প্রত্যাখান করছি।আমরা সোমবার যোর যার অবস্থান থেকে পাড়া, মহল্লায় মিছিল, সমাবেশ করে হরতাল প্রতিহত করব। ’

তিনি আরো জনতার উদ্দেশ্যে বলেন, ‘হেফাজত ইসলামের মুখোশ উন্মোচন হয়ে গেছে। তারা তাদের কওমী মাদ্রাসাগুলোতে কোনদিন জাতীয় পতাকা তুলেনা, জাতীয় সংগীত পরিবেশন করেনা। তারা জাতীয় পতাকা পুড়িয়েছে। অথচ লংমার্চে তারা জাতীয় পতাকা নিয়ে মিছিল করেছে। তাদের ভন্ডামি জনগণের কাছে ধরা পড়ে গেছে। ’ তিনি সোমবার হরতাল প্রত্যাখান করে আপনারা সবাই রাজপথে নামুন। গাড়ি বের করুন, দোকানপাট খোলা রাখুন। রাঙামাটি জেলা হরতালে জনগণের পাশে থাকবে। ’

এসময় জেলা, কলেজ, পৌর, সদর উপজেলা, ওয়ার্ডসহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখঃ শুক্রবার (২৬ মার্চ) রাত ৮টায় পুরানা পল্টনে এক সংবাদ সম্মেলনে সারা দেশে আগামীকাল শনিবার (২৭ মার্চ) বিক্ষোভ ও রোববার (২৮ মার্চ) হরতালের ঘোষণা দেয় হেফাজতে ইসলামী বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় নায়েবে আমির আবদুর রব ইউসুফী।

সর্বাধিক পঠিত