প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] আমি বিশ্বাস করি মেসি বার্সেলোনাকে ভালোবাসেন: বার্সার নতুন প্রেসিডেন্ট

স্পোর্টস ডেস্ক: [২] সবাইকে অবাক করে দিয়ে মৌসুমের শুরুতে বার্সেলোনা ছাড়তে চেয়েছিলেন লিওনেল মেসি। কিন্তু ৭০০ মিলিয়ন ইউরোর রিলিজ ক্লজের বাঁধায় শেষ পর্যন্ত প্রাণপণ চেষ্টা করেও এ ক্লাবেই থেকে যেতে হয় তাকে। তবে মৌসুম শেষেই হয়ে যাচ্ছেন ফ্রি এজেন্ট। তাকে কি ধরে রাখতে পারবে বার্সেলোনা? বার্সার নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট হুয়ান লাপোর্তা আশাবাদী। বার্সেলোনাকে ভালো বাসেন বলেই ক্লাবটিতে থাকবেন বলে বিশ্বাস করেন তিনি।

[৩] বার্সার সঙ্গে চুক্তির মেয়াদটা আর চার মাস রয়েছে বার্সেলোনার। সমর্থকদের মনে বড় শঙ্কা হয়তো এবার ঠিকই ক্লাব ছাড়বেন তাদের প্রিয় তারকা। কিন্তু লাপোর্তা তার নির্বাচনী প্রচারণার শুরু থেকেই বলে আসছেন তিনি নির্বাচিত হলে মেসিকে যে কোনো মূল্যেই ধরে রাখবেন। তাই স্বাভাবিকভাবেই নির্বাচিত হওয়ার পর সাংবাদিকদের এ প্রশ্নের সম্মুখে পড়েন তিনি। তবে মেসিকে ধরে রাখার সব চেষ্টাই করবেন বলে জানান লাপোর্তা।

[৪] মেসি যে বার্সেলোনাকে ভালোবাসেন তার পক্ষে যুক্তি তুলে ধরে নতুন প্রেসিডেন্ট বলেন, ২০ বছর আগে লিওনেল মেসি নামের একজন বালকের বার্সার বি’ দলে (অনূর্ধ্ব ১২-১৩) অভিষেক হয়েছিল। বিশ্বের সেরা ফুটবলারকে আজ ভোট দিতে আসতে দেখা পরিষ্কার উদাহরণ যা আমরা বলে এসেছি। লিও বার্সাকে ভালোবাসে। এটাই তার স্পষ্ট ইঙ্গিত। বিশ্বের সেরা খেলোয়াড় বার্সেলোনাকে ভালোবাসে। আশা করছি এটা থাকে বার্সেলোনায় থাকতে সাহায্য করবে। আর এটাই আমরা চাই।

[৫] অবশ্য মেসিকে বার্সেলোনায় ধরে রাখবেন এ অঙ্গীকার নিয়েই নির্বাচনে নেমেছিলেন লাপোর্তা। আর এ কারণেই নির্বাচনে এগিয়েছিলেন তিনি। শেষ পর্যন্ত প্রতিদ্বন্দ্বী ভিক্তর ফন্ত ও তনি ফ্রেইসারকে পেছনে ফেলে দ্বিতীয় দফায় বার্সার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন তিনি। আর তখন থেকেই সমর্থকদের আগ্রহ মেসির সঙ্গে কী কথোপকথন হয়েছে তার। গণমাধ্যমেরও মূল আকর্ষণ ছিল এই একই ইস্যু নিয়ে। মেসিসহ বার্সার অন্যান্য খেলোয়াড়রা কী নতুন প্রেসিডেন্টকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন? এমন প্রশ্নের জবাবে স্প্যানিশ সংবাদমাধ্যম আরএসিওয়ানকে লাপোর্তা বলেন, অবশ্যই, কিছু খেলোয়াড় আমাকে অভিনন্দন জানিয়েছে।

[৬] এই কিছু খেলোয়াড়দের তালিকায় কারা রয়েছেন জানতে চাইলে লাপোর্তা বলেন, কে? আচ্ছা, উদাহরণ হিসেবে বলি মেসি, জেরার্দ পিকে, জর্দি আলবা... আরও অনেকে। আমার মনে এটা খুব স্বাভাবিক একটি ব্যাপার। - ডেইলিস্টার/ মার্কা

সর্বাধিক পঠিত