প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] উচ্চবিত্ত পরিবারের মেয়েরা টার্গেট ছিলো নাসিরের, হাতিয়েছেন কোটি কোটি টাকা

সুজন কৈরী: [২] সরকারি বড় কর্মকর্তা পরিচয়ে নারীদের সঙ্গে প্রতারণা করে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগে নাসির উদ্দিন বুলবুল নামের একজন প্রতারককে আটক করেছে পুলিশ। সেই সঙ্গে আটক করা হয়েছে বুলবুলের সহযোগী মনির হোসেনকেও। রোববার গণভবন এলাকা থেকে তাদের আটক করে শেরেবাংলা নগর থানা পুলিশ।

[৩] পুলিশ জানায়, প্রতারক বুলবুল নিজেকে কখনও স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্সের (এসএসএফ) কর্মকর্তা আবার কখনও সরকারি কোনো দপ্তরের উচ্চপদস্থ কর্তাব্যক্তি বলে পরিচয় দিতেন। প্রতিদিনই বিভিন্ন ব্র্যান্ডের দামি হাত ঘড়ি ও চশমা পরতেন। ভিন্ন ভিন্ন পরিচয়ে উচ্চবিত্ত পরিবারের মেয়েদের টার্গেট করে প্রতারণা করছিলেন। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়েয় প্রতারণা করে হাতিয়ে নিয়েছেন কোটি কোটি টাকা।

[৪] এছাড়া জমি-জমার বিবাদ মীমাংসা ও চাকরি দেয়ার কথা বলেও প্রতারণা করতেন বুলবুল। প্রত্যেকদিনই পৃথক পৃথক নারীদের সঙ্গে তার অ্যাপয়েন্টমেন্ট থাকতো।

[৫] নিজ কার্যালয়ে সংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে ডিএমপির তেজগাঁও বিভাগের ডিসি হারুন অর রশিদ বলেন, বুলবুলের মিরপুরের পল্লবীর বাসায় অভিযান চালিয়ে ১৫টি বিভিন্ন অপারেটরের সিম কার্ড, বিপুল সংখ্যক বিভিন্ন নামী কোম্পানির হাতঘড়ি ও চশমা, ভুয়া পরিচয়পত্র, বিভিন্ন ফ্ল্যাটের দলিলের ফটোকপিসহ নানা আলামত উদ্ধার করা হয়েছে।

[৬] তিনি বলেন, বুলবুলের পোশাকে থাকতো আভিজাত্যের ছাপ। এসএসএফের ডিরেক্টর পরিচয় দিতেন। কোনও নারীদের সঙ্গে দেখা করতে গেলে একটি ব্রান্ডের ঘড়ি ও সানগ্লাস পরে যেতেন। কারও কাছ থেকে ভাড়ায় বা কোনওভাবে সংগ্রহ করে গাড়ি নিয়ে যেতেন। এভাবেই তিনি বড়লোকের মেয়েদের সঙ্গে ঘুড়তেন। এক মেয়ের বাবার সঙ্গে এসএসএফ কর্মকর্তা পরিচয়ে প্রতারণা করার সময় তাকে আটক করা হয়।

[৭] পুলিশ কর্মকর্তা হারুন অর রশিদ বলেন, এসএসএফসহ বিভিন্ন বড় প্রতিষ্ঠানের এমডি পরিচয় ব্যবহার করে জমিজমার দরবার ও চাকরি দেয়ার কথা বলে টাকা আত্মসাৎ করে পালিয়ে যেতেন। এছাড়া প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে থাকা কোনও ব্যক্তির ছবিতে নিজের চেহাড়া যুক্ত করে বুলবুল নিজেকে প্রধানমন্ত্রীর কাছের লোক বলে বোঝানোর চেষ্টা করতেন। নারীদের সঙ্গে দেখা করার সময় বলতেন যে, কোনও জিনিস তিনি একবারের বেশি ব্যবহার করেন না।

[৮] পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে বুলবুল প্রতারণার কথা স্বীকার করেছেন জানিয়ে ডিসি হারুন অর রশিদ বলেন, বুলবুল ও তার সহযোগীর বিরুদ্ধে শেরেবাংলা নগর থানায় মামলা হয়েছে।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত