প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

টেসলার দেড় বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ, বিটকয়েনের দর উঠল ৪৮ হাজার ডলারে

রাশিদ রিয়াজ : ফের বিটকয়েনের দর চড়তে শুরু করায় বাজার বিশ্লেষকরা বলছেন ক্রিপ্টোকারেন্সির দাম ৫০ হাজার ডলার ছাড়িয়ে যেতে পারি। কয়েনডেস্ক নিউজ জানায় সোমবার বিটকয়েনের দাম ৪৭ হাজার ডলার ছাড়িয়ে যায়। কয়েক ঘন্টার মধ্যে বিটকয়েনের দাম বৃদ্ধি পায় ৭ হাজার ডলারের বেশি। এটি রেকর্ড মূল্য। ৪৫ হাজার ডলার থেকে কয়েক ঘন্টায় মধ্যে ৪৭ হাজার ডলার ছাড়িয়ে যায় বিটকয়েনের মূল্য। বিটকয়েনে জানুয়ারিতে মার্কিন বৈদ্যুতিক গাড়ি নির্মাতা প্রতিষ্ঠান টেসলা দেড় বিলিয়ন ডলার বিনিয়োগের বিষয়টি নিশ্চিত করার পর এ ক্রিপ্টোকারেন্সির দর লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়তে থাকে। ফেব্রুয়ারির শুরুতে বিটকয়েনের দর পতনের মধ্যে দিয়ে ৩৩ হাজার ডলারে নেমেছিল। সোমবার তা উঠেছিল ৪০ হাজার ডলারে। এরপর তা আরো বৃদ্ধি পায়।

ব্লুমবার্গের কাছে ক্রিপ্টোকারেন্সি এক্সচেঞ্জ লুনো ও ব্রোকারেজ ফার্ম ওএসএল বলছে স্বর্ণের চেয়ে ক্রিপ্টোকারেন্সিতে অনেকে বিনিয়োগ করছে বলে এর দাম আরো বাড়বে। এর দর যখন ৪৪ হাজার ডলার ওঠে তখন টেসলা এধরনের ক্রিপ্টোকারেন্সিতে লেনদেনকে স্বীকৃতি দেয়। এই প্রথম কোনো গাড়ি নির্মাতা কোম্পানি বিটকয়েনে লেনদেনকে স্বীকৃতি দিল। টেসলা বলছে এধরনের ডিজিটাল মুদ্রা নমনীয় ও বৈচিত্রময় হওয়ার কারণে এতে বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। টেসলার প্রতিষ্ঠাতা এলন মাস্ক বলছেন তিনিও বিটকয়েনের সমর্থক। বরং ৮ বছর আগেই আমার বিটকয়েন কেনা উচিত ছিল। গত পহেলা ফেব্রুয়ারি এলন মাস্ক বলেন বিটকয়েন ভাল মুদ্রা। বিটকয়েনে বিনিয়োগের পর টেসলার শেয়ার মূল্য ২ শতাংশের বেশি বৃদ্ধি পায়। তবে বিনিয়োগকারীদের বিটকয়েনের দর ওঠা নামা নিয়ে সতর্ক করে দিয়েছে টেসলা। জনপ্রিয় বিটকয়েন ব্যবসায়ী স্কট মেলকার টুইটারে বলেন ওঠা নামার মধ্যেও এবার বিটকয়েনের দর ৬৩ হাজার ডলার ছাড়িয়ে যাবে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন ১.৯ ট্রিলিয়ন ডলার কোভিড সহায়তা প্যাকেজ ঘোষণার পর মুদ্রাস্ফীতির শঙ্কায় অনেকে বিটকয়েনে বিনিয়োগ করছেন। গত সপ্তাহে বিশিষ্ট বিনিয়োগকারী বিল মিলার বিটকয়েনে ৪শ মিলিয়ন ডলার বিনিয়োগ করেন। ফরেক্স ব্রোকার ওনাডা’র সিনিয়র বাজার বিশ্লেষক এডওয়ার্ড মোয়া বলছে খুচরা ও প্রাতিষ্ঠানিক আগ্রহ থাকলে বিটকয়েনের দর আরো বাড়বে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত