প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] অর্থনৈতিক বিকাশে পর্যটন খাত গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবে: মোস্তাফা জব্বার

শরীফ শাওন: [২] তিনি বলেন, পর্যটন শিল্পের জন্য বাংলাদেশ অপার সম্ভাবনাময় একটি খাত। খাতটিকে শক্তিশালী হিসেবে গড়তে সরকারের গৃহিত উদ্যোগের পাশাপাশি ট্যুর অপারেটরদের যথাযথ কর্মপরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করতে হবে।

[৩] ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার আরও বলেন, পর্যটন এলাকায় ওয়াইফাই নিশ্চিত করার পাশাপাশি মার্কেটিং ও গ্রুপ ট্র্যাকিংসহ বিভিন্ন বিষয়ে ডিজিটাল প্রযুক্তিসহ আধুনিক সুবিধা নিশ্চিত করতে পারলে পর্যটকদের আগ্রহ তৈরি হবে।

[৪] শনিবার রাজধানীতে এক কর্মশালায় তিনি বলেন, কক্সবাজারের সাবরাংয়ে পর্যটকদের জন্য বিশেষ পর্যটন জোন প্রতিষ্ঠা করা হচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে শিল্পটিতে এক নতুন মাত্রায় রূপ নিয়েছে। দেশে গত এক দশকে গড়ে উঠা অবকাঠামো বিদেশি পর্যটকদের জন্য গ্রহণযোগ্য মাত্রার। বাংলাদেশ ভ্রমণে বিদেশিদের আগ্রহ বাড়িয়ে তুলতে পারলে পর্যটন খাতে আরও সৃদৃঢ় অবকাঠামে গড়ে উঠবে এবং এখাতে বিনোয়োগ বৃদ্ধি পাবে।

[৫] মোস্তফা জব্বার বলেন, একসময় ট্যুরিজমের জন্য দেশে অবকাঠামো ছিল না। তখন সীমিত এলাকায় পর্যটনে আগ্রহী ছিল পর্যটকরা। বর্তমানে টাঙ্গুয়ার হাওর, সুন্দরবন, প্রত্নতাত্বিক নিদর্শন বা দেশের প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের জায়গায় ব্যাপক আগ্রহ বেড়েছে।

[৬] এই খাতে কর্মসংস্থানেরও বিরাট সুযোগ রয়েছে। প্রযুক্তির সুযোগ কাজে লাগিয়ে খাতটির জন্য দক্ষ মানব সম্পদ তৈরি ও অবকাঠামো গড়ে তুলতে হবে। অভ্যন্তরীণ ট্যুরিজমের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক ট্যুরিজমের প্রতি বিশেষ গুরুত্ব দিতে হবে। দেশকে বিদেশে তুলে ধরতে পর্যটন শিল্প খুবই গুরুত্বপূর্ণ একটি খাত।

সর্বাধিক পঠিত