প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ফোন বিক্রির টাকা নিয়ে ঝগড়া, তরুণ খুন

ডেস্ক রিপোর্ট : পুরোনো একটি মুঠোফোন বিক্রির টাকা নিয়ে তিন তরুণের ঝগড়া চলছিল। এর মধ্যে ক্ষিপ্ত হয়ে একজনের ওপর চড়াও হন দুই তরুণ। হাতে ও ঊরুতে ছুরিকাঘাত করেন তাঁরা। ছুরিকাহত তরুণটি দুজনকে ঝাপটে ধরে চিৎকার করলে তাঁর বুকে ও তলপেটে ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান ওই দুই তরুণ। ছুরিকাহত তরুণটি ঘটনাস্থলেই মারা যান।

বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সিলেট নগরীর জালালাবাদ থানা এলাকার হাওলদার পাড়ার একটি দোকানের সামনে এ ঘটনা ঘটে। ছুরিকাঘাতে খুন হওয়া তরুণের নাম রাজু দাস (২২)। তাঁর বাড়ি হবিগঞ্জের নবীগঞ্জ উপজেলায়। বর্তমানে দুসকির টিলা এলাকার হাওলদার পাড়ায় বসবাস করতেন।

জালালাবাদ থানা–পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রাজুর লাশ সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল থেকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠানো হয়েছে। তাঁকে ছুরিকাঘাতকারী দুই তরুণের বাড়ি দুসকির টিলা এলাকায়। সম্পর্কে তাঁরা মামা-ভাগনে। ঘটনার পর থেকে তাঁরা পলাতক।

ঘটনার কয়েকজন প্রত্যক্ষদর্শীর বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, পুরোনো একটি মুঠোফোন বিক্রির টাকা তিনজনের মধ্যে ভাগ-বাঁটোয়ারা করা নিয়ে ঝগড়া বাধে। রাজুর কাছ থেকে মুঠোফোন বিক্রির পুরো টাকা নিতে গিয়ে তাঁকে ছুরিকাঘাত করা হয়। ডান হাতের কনুইয়ে, ঊরুতে ও পিঠে তিনটি ছুরিকাঘাত করার পর রাজু চিৎকার করে লোক জড়ো করতে চাইলে তখন বুকের ডান পাশে ও কোমরে দুটি ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যান দুই তরুণ। এ সময় রাজু ঘটনাস্থলে লুটিয়ে পড়েন। স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে রাজু মারা যান।

সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত উপকমিশনার (গণমাধ্যম) বি এম আশরাফ উল্যাহ জানান, রাজুকে ছুরিকাঘাত করে পালানো দুজনের নাম ও ঠিকানা পেয়েছে পুলিশ। দুজনকে গ্রেপ্তার করার চেষ্টা চলছে। এ ঘটনায় রাজুর পরিবারও হত্যা মামলার প্রস্তুতি নিয়েছে। সূত্র: প্রথম আলো

সর্বাধিক পঠিত