প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘কাদের মির্জার বক্তব্য বিএনপিকেও হার মানায়’ টকশোতে আব্দুল গফফার চৌধুরী (ভিডিও)

ফরহাদ বিন নূর: ‘আল-জাজিরা ও বাংলাদেশের ভাবমূর্তি’ শীর্ষক একটি শিরোনামের অনলাইন টকশোতে বাংলাদেশী গ্রন্থকার, কলাম লেখক, ভাষাসৈনিক এবং ‘আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙানো’ গানের রচয়িতা আব্দুল গফফার চৌধুরী আল জাজিরার প্রতিবেদনকে সম্পূর্ণ মিথ্যা দাবী করে বলেন, আমাদের যে বর্তমান সেনা প্রধান জেনারেল আজিজ, উনার অপরাধ হলো তিনি ক্ষমতা লিপ্সু নন। তাঁকে যখন প্রধান সেনাপ্রধান করা হয় তখন জোর প্রোপাগাণ্ডা চালানো হয়েছিল তাঁর বিরুদ্ধে। কিন্তু শেখ হাসিনা জানেন, জেনারেল আজিজ আর যা-ই করেন, মিয়ানমারের সেনাপ্রধানের মতো ক্ষমতা দখলের চেষ্টা করবেন না। ডেভিড বার্গম্যানরা সামরিক বাহিনীর মনে সরকারের বিরুদ্ধে অসন্তুষ্টি সৃষ্টি করতে না পেরে লাস্ট চান্স জেনারেল আজিজ সাহেবের চরিত্র হনন করে সাধারণ সৈনিকদের মনে তাঁর সম্বন্ধে বিদ্বেষ সৃষ্টি করে তাঁকে অপসারণ করে এমন একজনকে সেনা প্রধানের পথে আনা যাকে দিয়ে তারা জেনারেল জিয়াউর রহমার ও জেনারেল এরশাদের ভূমিকা পালন করতে পারেন ।

আল জাজিরার এই প্রতিবেদন জামায়াতে ইসলামীর টাকা খেয়ে করা হয়েছে ইঙ্গিত করেন আব্দুল গফফার চৌধুরী। বলেন, আমাদের সমাজের মধ্যম এবং নিচের স্তরে জামায়াতে ইসলামের প্রভাব অত্যন্ত প্রখর। মাথায় ঘোমটা দেয়া, দাড়ি রাখা এগুলো এখন আওয়ামী লীগের রাজনৈতিক কালচার হয়ে গেছে। অর্থাৎ সামাজিক স্তরে জামায়াতে ইসলামী যদিও পরাভূত, তাদের নেতাদেরকে ফাঁসি দেয়া হয়েছে। কিন্তু তাদের যে সামাজিক শক্তি, সেটা মসজিদ-মাদ্রাসা কেন্দ্রীক এবং আমাদের সাধারণ মানুষকে প্রভাবিত ও ধর্মান্ধ করেছে । বৃটিশ আমল এবং পাকিস্তান আমলেও আমরা এতোটা ধর্মান্ধ ছিলাম না। এখন আওয়ামী লীগের জনসভা শুরু হয় সূরা কেরাত দিয়ে। যেটা বঙ্গবন্ধুর জীবদ্দশায় ছিল না। বঙ্গবন্ধু বরাবারই বলতেন, ধর্ম তোমার ব্যক্তিগত বিশ্বাস, রাষ্ট্র সকলের। কিন্তু হাজার বছরের এই মাল্টি কালচারাল দেশ এখন ওয়ান কালচার। সেটাও একটা ধর্মীয় কালচার। তার ওপরে জামায়াত, হেফাজত শক্তিশালী হয়েছে।

আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক শক্তি নিয়ে আব্দুল গফফার চৌধুরী বলেন, এখন তাদের (আওয়ামী লীগের) নিজেদের ভিতরে তো ঝগড়া। ওবায়দুল কাদেরের ভাই কাদের মির্জার যে বক্তব্য এখন বের হয়, এগুলো বিএনপিকেও হার মানায়।

আল জাজিরার প্রতিবেদনের প্রধান ভাষ্যকার ডেভিড বার্গম্যান সম্পর্কে আব্দুল গফফার চৌধুরী বলেন, ডেভিড বার্গম্যান যেমন একাত্তরের ঘাতক-দালালদের টাকা খেয়ে (সে সময়) বহির্বিশ্বে প্রচার চালিয়ে ছিলেন, আজকেও তেমনি হাসিনা সরকারের বিরুদ্ধে আল-জাজিরারে মধ্য দিয়ে এই অপপ্রচার চালিয়েছেন।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত