প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] চলচ্চিত্র শিল্পী কলাকুশলীদের পাশে সবসময়ই আছি: প্রধানমন্ত্রী

মনিরুল ইসলাম: [২] প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, চলচ্চিত্র শিল্পী ও কলাকুশলীদের পাশে সব সময়ই আছি।[৩] তিনি বলেন,  মানুষকে সিনেমা হলমুখী করে তুলতে পরিবার পরিজন নিয়ে দেখা যায় এমন চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে হবে। শিশুদের উপযোগী করে চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে হবে। আধুনিক ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহার করে ভালো সিনেমা নির্মাণের ব্যাপারে সরকার সর্বাত্মক সহায়তা করবে।

[৪]রোববার বেলা ১১টার দিকে জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার-২০১৯ বিতরণী অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে যুক্ত হয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

[৫] প্রধানমন্ত্রী বলেন, চলচ্চিত্র শুধুমাত্র শিল্পী ও কলাকুশলীদের জন্যই নয়, দেশের মানুষের ভাগ্যেন্নয়নের ক্ষেত্রেও অবদান রাখতে পারে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দেশের মানুষকে আরও উদ্বুদ্ধ করার পাশাপাশি প্রজন্মের পর প্রজন্ম যেন বিজয়ের ইতিহাস জানতে পারে সেদিকে লক্ষ্য রেখে চলচ্চিত্র নির্মাণ করতে হবে।

[৬] চলচ্চিত্র নির্মাণে তরুণ সমাজের এগিয়ে আসাকে ভালো লক্ষণ মন্তব্য করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, তরুণ সমাজ বেশ এগিয়ে এসেছে। এটা আমাদের জন্য সত্যি খুব আনন্দের বিষয়। শিল্পটা সামনের দিকে আরও এগিয়ে যাবে। আমরা তো বৃদ্ধ হয়ে গেছি, আজ আছি তো কাল নেই, তরুণ সমাজের আগ্রহ বেড়েছে, তারা যে এগিয়ে এসেছে এটা আমাদের জন্য ভাল লক্ষণ।

[৭] তিনি বলেন, চলচ্চিত্রের উন্নয়নে সরকার নানামুখী ব্যবস্থা নিয়েছে। ১০০০ হাজার কোটি টাকার বিশেষ তহবিল করা হচ্ছে। এখান থেকে স্বল্প সুদে ঋণ নিয়ে সিনেমা মালিকরা তাদের হলের আধুনিকায়ন করতে পারবে।

[৮] তিনি আরও বলেন, শিল্পী – কলাকুশলীদের কল্যাণে চলচ্চিত্র শিল্পী কল্যাণ ট্রাষ্ট করা হয়েছে।।আইন করে এই ট্রাষ্ট গঠণ করা হবে। চলচ্চিত্রের সাথে জড়িত সকলেই এখান থেকে সহযোগিতা পাবে।

[৯] বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে পুরস্কারপ্রাপ্তদের মধ্যে সনদ ও সম্মাননা তুলে দেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত