প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তসলিমা নাসরিন: সেক্স করার সামাজিক লাইসেন্সকে পবিত্র ভাবা হচ্ছে কোন দুঃখে?

তসলিমা নাসরিন : বাংলাদেশ হাইকোর্ট বলেছেন, মেয়েরা বিয়ের কাজী হতে পারবে না। কারণ বিয়ের মতো পবিত্র কাজ মেয়েদের মতো অপবিত্ররা সম্পন্ন করতে পারবে না। কেন মেয়েরা অপবিত্র? মেয়েরা অপবিত্র কারণ মেয়েদের শরীর থেকে ঋতুস্রাবের সময় অপবিত্র রক্ত বেরোয়। ভাগ্যিস বেরোয়, বেরোয় বলেই হাইকোর্টের বিচারকদের জননীরা অপবিত্র সব সন্তান প্রসব করতে পেরেছেন। সেক্স করার সামাজিক একটা লাইসেন্সকে পবিত্র ভাবা হচ্ছে কোন দুঃখে? ভাবাই যখন হচ্ছে, তখন প্রশ্ন থেকে যায়- বিয়ের মতো পবিত্র ঘটনায় ঋতুমতী অপবিত্র মেয়েকে কেন পাত্রী হিসেবে দরকার পড়ে?

যদি বিয়ের দিন সোমত্ত পাত্রী ঘোষণা করে, অপবিত্র ঋতুস্রাবের অপবিত্র রক্ত তার অপবিত্র যোনিপথ দ্বারা কখনো নির্গত হয় না, তাহলেই তো আঁতকে উঠবে পুরুষ বর, পুরুষ কাজী, পুরুষ বিচারকগণ। তাহলে শুভবিবাহে ঋতুমতীর অশুভ রক্তের প্রয়োজন সর্বাগ্রে। কাজীর কোন পথে দিয়ে কী নির্গত হচ্ছে তা জানা সমাজের জন্য এত দরকার কেন! ঋতুস্রাবের রক্ত তো যখন তখন যাকে তাকে দেখে নির্গত হওয়া বীর্যের চেয়ে ঢের পবিত্র। অন্তত এ কথা নিশ্চিত, ঋতুস্রাবের রক্ত নয়, হাইকোর্টের বিচারকদের মুখ দিয়ে নারীবিদ্বেষী যে বীর্য থুরি রায় নির্গত হয়েছে, তা পচা এবং দুর্গন্ধময়। পুরুষতন্ত্রকে টিকিয়ে রাখতে ধর্মের প্রয়োজন চিরকাল হয়েছে, আজও হচ্ছে। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত