প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রবিউল আলম: প্রেসক্লাবের সুষ্ঠু নির্বাচন, আওয়ামী লীগের সম্মেলন কোন পথে?

রবিউল আলম : আওয়ামী লীগ ও প্রেসক্লাবের ইতিহাস-ঐতিহ্য বর্ণনা করার সামর্থ কোনোটাই আমার নেই, আছে বোবার মতো চেয়ে চেয়ে দেখা। সাংবাদিক-আইনজীবীরা দল ও জাতির বিবেক হিসেবে স্বীকৃতি অর্জন করেছেন বলেই আমরা তাদের কাছে জ্ঞান-অর্জনের সহায়তার জন্য ব্যাকুল। রাজনৈতিক মতবাদ ছাড়া এই জ্ঞানী, মহাজ্ঞানী মানুষগুলো দেশ-বিদেশের মাটিতে একবাক্যে শেখ হাসিনার গুণে মুদ্ধ। মাঝে মাঝে কিছু পরামর্শ দেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কিছু পরামর্শও নেন। পরামর্শ ছাড়া পদ্মা সেতু, মাতারবাড়ী বন্দর, রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রসহ দেশকে আজ উন্নয়ন যাত্রার আনা সম্ভব হতো না।

সাংবাদিকতায় নিরপেক্ষতার প্রমাণ দিয়েছেন সভাপতি-সম্পাদক ভাগ করে দিয়ে। দিয়েছেন আইনজীবীরাও একক প্যানেল পাস করতে না দিয়ে। আওয়ামী লীগের সম্মেলন নিয়ে অনেক কথার বাহারী আলোচনা চলছে, এবার সম্মেলনে করতে হবে থানা ওয়ার্ড ইউনিট পর্যন্ত, কোনো ভাইয়ের লোক নাকি চলবে না। আমি ভাই ছাড়া কোনো নেতাকে খুঁজেও পাচ্ছি না। দীর্ঘদিন যারা আওয়ামী লীগের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত, লড়াই সংগ্রামে অংশগ্রহণ করেছেন, তাদের ভাষা বিকৃত হয়ে গেছে আত্মঅহংকারে। পকেটে টাকা নেই, মুখে মিষ্টি ভাষা নেই। নেই কোনো চাটুকারী। অহংকার মুজিবাদর্শ ধারণ করেছি, রাজপথে রক্ত দিয়েছি, শেখ হাসিনার দল করি পদের কী প্রয়োজন। নতুনদের হাসিমাখা মুখ,পকেটের টাকা, প্রতিদিনের দর্জায় ধর্না দেওয়াই যদি এবারের মহানগর সম্মেলনের পদ-পদবি জন্য মাপকাঠি হয়, তবে ধরে নিতে পারেন প্রেসক্লাবের সাংবাদিক, হাইকোর্টের আইনজীবীদের মতো আওয়ামী লীগের সম্মেলন নিরপেক্ষ হবে। আওয়ামী লীগ শুধু আমাদের পক্ষ বলতে পারবো না। জাতীয় সম্পদে পরিণত হবে। লেখক : মহাসচিব, বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতি

সর্বাধিক পঠিত