প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

[১] আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তি: রুক্ষ স্বভাবের কারণে বাপ্পীকে কুপিয়ে হত্যা করে বন্ধুরা

বগুড়া প্রতিনিধি: [২] জেলার শাজাহানপুর উপজেলায় বাপ্পি (১৫) নামে এক কিশোরকে গত ২৯ ডিসেম্বর রাতে পাখী শিকারের খথা বলে ডেকে নিয়ে তার বন্ধুরাই এলোপাতাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে। বাপ্পীর ‘রুক্ষ স্বভাব’ এর কারণে ঘনিষ্ঠ বন্ধুরা তার ওপর ক্ষীপ্ত হয়ে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে।

[৩] গ্রেফতারকৃত দুই আসামি শনিবার (২ জানুয়ারি) আদালতে ১৬৪ ধারায় দেয়া স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দিতে এ তথ্য দিয়েছে এবং হত্যা কাজে ব্যবহৃত অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। গ্রেফতারকৃত দুই আসামি হলো নুরুজ্জামান (২১) ও জিহাদ বাবুকে (১৭)।

[৪] জবানবন্দিতে দুই আসামি জানায়, বাপ্পীর সঙ্গে তাদের বাল্যকাল থেকে বন্ধুত্ব। তবে বাপ্পী কথায় কথায় বন্ধুদের গালিগালাজ করতো। তার গায়ে হাত তোলার অভ্যাসও ছিল। ক্রমেই সে বেপরোয়া হয়ে উঠে। তার রুক্ষ স্বভাবের কারণেই তাকে হত্যার সিদ্ধান্ত নেয় তারা।

[৫] নুরুজ্জামান ও জিহাদ বাবু জানান, গত মঙ্গলবার (২৯ ডিসেম্বর) রাতে পাখি শিকারের কথা বলে বাড়ির পাশের শিমের মাচার কাছে ডেকে নেয় নুরুজ্জামান ও জিহাদ বাবু। বাপ্পী সেখানে আসলেই তারা হাসুয়া দিয়ে পেছন দিক থেকে বাপ্পির ঘাড়ে আঘাত করে। এরপর জিহাদ বাবু তার হাতে থাকা রামদা দিয়ে মাথার পেছনের দিকে আঘাত করলে মাটিতে লুটিয়ে পড়ে বাপ্পী। স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরদিন তার বাবা মাকছেদ আলী বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন।

[৬] শাজাহানপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আজিম উদ্দীন এ তথ্য নিশ্চিত এ প্রতিবেদক-কে বলেন, বাপ্পী হত্যাকাণ্ড মামলার প্রধান দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। হত্যার কাজে ব্যবহৃত অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে। সম্পাদনা: জেরিন আহমেদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত